BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

‘হিন্দুত্ববাদী ভারত সরকার পাঞ্জাবি কৃষকদের জন্য ভাবে না’, খোঁচা পাকিস্তানের মন্ত্রীর

Published by: Paramita Paul |    Posted: December 7, 2020 5:02 pm|    Updated: December 7, 2020 5:55 pm

Bengali news: Pakistan' Minister slams Indian government over farmer's protest | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নয়াদিল্লির কাটা ঘায়ে নুনের ছিঁটে দিচ্ছে পাকিস্তান (Pakistan) ! এবার কৃষক আন্দোলন নিয়ে মোদি সরকারের সমালোচনায় সরব পাকিস্তানের মন্ত্রী। ইমরান খানের মন্ত্রিসভার সদস্যের খোঁচা, “হিন্দুত্ববাদী গুজরাটি ভারত সরকারের পাঞ্জাবি কৃষকদের জন্য কোনও সমবেদনা নেই। ভারত সরকারে এমন পাঞ্জাব বিরোধী মনোভাবের জন্য লজ্জা হওয়া উচিত।”

দিল্লি সীমানায় চলতে থাকা কৃষক আন্দোলন (Farmers Protest) নিয়ে ঘরে-বাইরে চাপে পড়ছে মোদি সরকার। নয়া তিন কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে সরব কৃষকরা। টানা ১২ দিন ধরে আন্দোলন চলছে। তাঁদের সমর্থন জানিয়েছে কানাডা, ব্রিটেনের শিখ-পাঞ্জাবি সমাজের প্রতিনিধিরা। এবার এই ইস্যুকে ভারত সরকারের সমালোচনা করলেন পাকিস্তানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী চৌধুরি ফাওয়াদ হুসেন

[আরও পড়ুন : কৃষকদের প্রতি সুবিচারের দাবিতে উত্তাল লন্ডনের রাজপথ, বেজায় অস্বস্তিতে মোদি সরকার]

পরপর কয়েকটি টুইট করেছেন ফাওয়াদ (Fawad Chaudhry)। প্রথম টুইটে তাঁর খোঁচা, “সীমান্তের ওপাশে থাকা পাঞ্জাবি কৃষকদের জন্য আমি ব্যথিত। টানা ১২ দিন ধরে আন্দোলন চলছে। অথচ হিন্দুত্ব গুজরাটি ভারত সরকারের পাঞ্জাবি কৃষকদের জন্য কোনও ভাবনাই নেই। ভারত সরকারের পাঞ্জাববিরোধী এই মনোভাব লজ্জাজনক।”

#FarmersProtest হ্যাসট্যাগ ব্যবহার করে ফাওয়াদ আরও লেখেন, “যে কোনও জায়গার অবিচার সুবিচারকে প্রভাবিত করে। মোদি সরকারের পাঞ্জাব বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা প্রয়োজন। নরেন্দ্র মোদির নীতি গোটা অঞ্চলের জন্য ক্ষতিকারক।” তাঁর কটাক্ষ, “প্রধানমন্ত্রী মোদির বিরোধিতা করলেই তাঁকে পাকিস্তানের প্রতিনিধি হিসেবে দেগে দেওয়া হচ্ছে। এটাই নতুন ফ্যাশন হয়ে গিয়েছে।”

[আরও পড়ুন : পাকিস্তান থেকে চোরাচালানের চেষ্টা, শ্রীলঙ্কায় বাজেয়াপ্ত ২১ হাজার কোটি টাকার মাদক]

কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে দিল্লির বিভিন্ন সীমানায় আন্দোলন চলছে। বিভিন্ন মহল থেকে কৃষকদের পাশে থাকার বার্তা এসেছে। কিন্তু সরকার এখনও তাঁদের দাবি মানেনি। বরং চলছে দর কষাকষি। ৯ তারিখ ফের বৈঠকের টেবিলে বসছে দুপক্ষ। তার আগে ৮ তারিখ ভারত বনধের ডাক দিয়েছেন কৃষকরা (Farmers)। সমর্থন এসেছে বিরোধী দলগুলি থেকেও। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে