১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ১৮ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কুলভূষণ যাদবের মামলায় ভিয়েনা চুক্তি ভেঙেছে পাকিস্তান। নিউ ইয়র্কে রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে বুধবার একথাই জানালেন আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচার আদালতের প্রেসিডেন্ট বিচারপতি আবদুলকাই ইউসুফ। সাধারণ সভায় উপস্থিত ১৯৩টি সদস্য দেশের প্রতিনিধিদের সামনে এই সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট পেশ করেন তিনি। বলেন, ‘গত ১৭ জুলাই এই মামলার রায় দেওয়ার সময় ধরা পড়ে যে পাকিস্তান ভিয়েনা চুক্তির ৩৬ নম্বর ধারাকে লঙ্ঘন করেছে। এই সংক্রান্ত বিষয়ে ভিয়েনা চুক্তি অনুযায়ী পদক্ষেপ নেয়নি।’

[আরও পড়ুন: কীভাবে খতম হল বাগদাদি, অপারেশনের ভিডিও প্রকাশ আমেরিকার]

কয়েকমাস আগে পাকিস্তানকে কুলভূষণের প্রাণদণ্ডের আদেশ পুনর্বিবেচনা করার নির্দেশ দিয়েছিল আন্তর্জাতিক আদালত। কিন্তু,  রাষ্ট্রসংঘের বিচার বিভাগের সেই নির্দেশ পাকিস্তান এখনও কার্যকর করেনি বলেও অভিযোগ করেন ইউসুফ।

তিনি আরও অভিযোগ করেন,  কুলভূষণকে দেওয়া মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ খতিয়ে দেখেছিল আন্তর্জাতিক আদালত। তাতে ধরা পড়েছিল, কুলভূষণের ক্ষেত্রে ভিয়েনা চুক্তির ৩৬ নম্বর ধারা মানেনি পাকিস্তান। এবং তাদের এর জন্য যে জরিমানা করা হয়েছিল সেটাও এখনও মেটায়নি। কুলভূষণের প্রাণদণ্ডের নির্দেশ পুনর্বিবেচনা করার জন্য পাকিস্তান সরকারকে চাপ দিয়েছিল আইসিজে। ভিয়েনা চুক্তি ভাঙার জন্য কুলভূষণকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার পাশাপাশি তাঁকে শাস্তি দিতে বিকল্প পথ খুঁজতে বলেছিল। কিন্তু, পাকিস্তান তাতে ভ্রূক্ষেপ করেনি।

[আরও পড়ুন:শরীরে মিলল পুরুষের ডিএনএ, পাকিস্তানে হিন্দু ছাত্রীর মৃত্যু তদন্তে নয়া মোড়]

২০১৬ সালের তিন মার্চ বালুচিস্তান থেকে চরবৃত্তির অভিযোগে কুলভূষণ যাদবকে গ্রেপ্তার করেছিল পাকিস্তানি নিরাপত্তা বাহিনী। তারপর সেনা আদালতে তাঁর বিচার করে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল পাকিস্তান সরকার। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে আবেদন করে ভারত। গত জুলাই মাসে এই সংক্রান্ত ভোটে ১৫–১ ভোটে হেরে যায় পাকিস্তান। কিন্তু, তারপরও রাষ্ট্রসংঘ বা আইসিজে কথায় গুরুত্ব দিচ্ছে না তারা।

পাকিস্তান কুলভূষণকে বালুচিস্তান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি করে। কিন্তু, এই কথা মিথ্যে বলে অভিযোগ ভারতের। ব্যবসার কাজে ইরানে থাকা কুলভূষণকে  জোর করে আইএসআই অপহরণ করেছে বলেও অভিযোগ। এমনকী পাকিস্তান যে তারিখে বালুচিস্তান থেকে কুলভূষণকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে। তার ২১ দিন পরে পাকিস্তান বিষয়টি ভারতকে জানায়। যা ভিয়েনা চুক্তির শর্তকে লঙ্ঘন করছে বলেই অভিযোগ আন্তর্জাতিক আদালতের প্রেসিডেন্টের। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং