৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপের পর প্রথমবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ সূত্রের খবর, তিরিশ মিনিটের কথাবার্তায় কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানের অবস্থান সম্পর্কে ক্ষোভ প্রকাশ করেন নরেন্দ্র মোদি৷ স্পষ্ট জানান, ভারত বিরোধী কাজকর্মে উসকানি ও প্রত্যক্ষ মদত দিচ্ছে পাকিস্তান৷ যা কোনও ভাবেই দক্ষিণ এশিয়ায় শান্তি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে ভাল লক্ষণ নয়৷

[ আরও পড়ুন: সাম্প্রদায়িক উসকানির জের, জাকির নায়েককে নিষিদ্ধ করল মালয়েশিয়ার একাধিক প্রদেশ ]

নয়াদিল্লি সূত্রে খবর, এদিন সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতেও দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে কথাবার্তা হয়৷ দক্ষিণ এশিয়ায় তৎপর জঙ্গি সংগঠনগুলির বিরুদ্ধে ভারতকে সাহায্যের আশ্বাস দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প৷ পাশাপাশি, এই অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠার পক্ষেও সওয়াল করেন তিনি৷ এছাড়া, দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক সম্পর্ক মজবুত করার বিষয়েও কথা বলেন নরেন্দ্র মোদি ও ডোনাল্ড ট্রাম্প৷

[ আরও পড়ুন: সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মান পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি ]

উল্লেখ্য, ২২ জুলাই পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে সাক্ষাতের পর কাশ্মীর ইস্যুতে নয়া বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ এই বিষয়ে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি৷ যা কার্যত লুফে নিয়েছিল ইসলামাবাদ৷ কিন্তু প্রথম থেকেই ট্রাম্পের সেই আরজির বিরোধিতা করেছে ভারত৷ বিদেশমন্ত্রকের তরফে সাফ জানানো হয়েছে, কাশ্মীর ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়, তাই এক্ষেত্রে তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ বরদাস্ত করা হবে না৷ তবে সম্প্রতি এই অবস্থান থেকে সরে এসেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷ আমেরিকায় নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত হর্ষবর্ধন শ্রিংলাকে তিনি সাফ জানান, জম্মু-কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা তখনই সম্ভব হবে, যদি ভারত-পাকিস্তান উভয় এই প্রস্তাব স্বীকার করবে৷ যেহেতু ভারত প্রথম থেকেই এই মধ্যস্থতার প্রস্তাবের বিরুদ্ধে, তাই ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে মধ্যস্থতার কোনও সম্ভাবনা নেই৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং