১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জাকির নায়েককে ভারতে প্রত্যর্পণের জন্য মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কট্টরপন্থী এই ধর্মপ্রচারককে ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার ব্যাপারে সবরকম সাহায্যের আশ্বাসও দিয়েছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মহাথীর বিন মহম্মদ।

[ আরও পড়ুন: দেশবাসীর প্রবল চাপের মুখে হংকংয়ে প্রত্যাহার বিতর্কিত বন্দি প্রত্যর্পণ বিল ]

নতুন ‘বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইন’ (ইউএপিএ অ্যাক্ট)-এ বুধবারই দাউদ ইব্রাহিম, পাক জঙ্গি নেতা মাসুদ আজাহার, হাফিজ সইদ, জাকিউর লকভিকে ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ ব্যক্তি হিসাবে ‘সন্ত্রাসবাদী’ ঘোষণা করেছে মোদি সরকার। মাসুদ-হাফিজকে সন্ত্রাসবাদী তকমা দেওয়ার সিদ্ধান্তের জন্য ভারতের প্রশংসা করেছে আমেরিকাও। বৃহস্পতিবার রাশিয়ার ভ্লাদিভস্তকে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসেও জাকির নায়েকের প্রত্যর্পণের জন্য মোদি যেভাবে তাঁকে চাপ দিলেন তাতে স্পষ্ট জঙ্গি দমন নিয়ে কড়া পদক্ষেপ করতে চলেছে কেন্দ্র। ’৯৩—এর মুম্বই বিস্ফোরণের চক্রী পাকিস্তানে আশ্রয় নেওয়া দাউদ ইব্রাহিমই হক বা ২০০৮ সালে মুম্বইয়ে ধারাবাহিক হামলার মাস্টারমাইন্ড লস্কর-ই-তইবার শীর্ষনেতা হাফিজ সইদ হক কিংবা বিতর্কিত ভাষণ দিয়ে দেশে হিংসা ছড়ানোর অভিযুক্ত জাকির নায়েক হক, কাউকেই রেয়াত করবে না মোদি সরকার। ভারত-মালয়েশিয়ার বিদেশ ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন মোদি ও মহাথীর। বৈঠকের শুরুতেই জাকিরকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার কথা বলেন মোদি।

[ আরও পড়ুন: পর্নস্টারকে ‘কাশ্মীরি যুবক’ ভেবে খোরাক পাক আমলা, উত্তরে মজার টুইট জনি সিনসের ]

উল্লেখ্য, তিন বছর আগে ভারত থেকে মালয়েশিয়ায় পালিয়ে গিয়ে সেখানকার স্থায়ী বাসিন্দা হয়ে গিয়েছে ৫৩ বছরের জাকির। ঢাকায় একটি রেস্তরাঁয় আত্মঘাতী হামলার পিছনেও তার হাত ছিল। ভারতের পর মালয়েশিয়ায় পৌঁছেও হিন্দু-খ্রিস্টান-চিনা বিরোধী বিতর্কিত ভাষণ দিয়ে স্থানীয়দের মনে হিংসা ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে। দুই রাষ্ট্রপ্রধানের বৈঠকের পর ভারতের বিদেশ সচিব বিজয় গোখলে জানিয়েছেন, জাকিরকে দেশে ফেরানোর জন্য যাবতীয় সাহায্য করবে মালয়েশিয়া। দু’দেশের সরকারি আধিকারিকরা তার জন্য সব সময় নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ রেখে যাবেন। ইস্টার্ন ইকোনমিক ফোরামের বৈঠকের জন্য রাশিয়ায় সফর করছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। বুধবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে বৈঠকের পর যৌথ সাংবাদিক সম্মেলন করেন তিনি। রাশিয়ার সঙ্গে ভারতের অটুট বন্ধুত্বের কথা মনে করিয়ে দিয়ে মোদি বলেন, “দু’দেশের বন্ধুত্ব শুধু দেশগুলির রাজধানীর মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। এই সম্পর্ক দু’দেশর মানুষের মধ্যেও রয়েছে। চেন্নাই থেকে ভ্লাদিভস্তকে জাহাজ চলাচলের রুট তৈরি করারও কথা ভাবছি আমরা।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং