BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কঠিন মসনদে ফেরার লড়াই! প্রাক নির্বাচনী সমীক্ষায় বিডেনের থেকে পিছিয়ে ট্রাম্প

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: September 15, 2020 9:27 am|    Updated: September 15, 2020 11:17 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যতই দিন যাচ্ছে, মসনদে ফেরার লড়াই ততই কঠিন হয়ে পড়ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। সম্প্রতি একটি বিস্ফোরক প্রতিবেদন সামনে এসেছে। যাতে জানা গিয়েছে, করোনার ভয়াবহতা সম্পর্কে সবকিছু জেনেও ইচ্ছা করে মার্কিন নাগরিকদের ভুল তথ্য দিয়েছিলেন ট্রাম্প। একই অভিযোগ করেছেন ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী কমলা হ্যারিসও। পাশাপাশি, বিভিন্ন যুদ্ধ ও সন্ত্রাসদমন অভিযানে আহত ও নিহত মার্কিন সেনাদের ব্যক্তিগত আলাপচারিতায় ট্রাম্প ‘হাঁদা’ ও ‘হেরো’ বলে মন্তব্য করছেন বলে জানা গিয়েছে। এর পরেই ইয়াহু নিউজ ও ইউগভ সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বিডেন (Joe Biden) -এর তুলনায় ট্রাম্প প্রায় দশ পয়েন্ট পিছিয়ে পড়েছেন। নথিভুক্ত ভোটারদের উপর ৯ থেকে ১১ সেপ্টেম্বর এই সমীক্ষা চালানো হয়। যাতে বিডেনের পক্ষে রয়েছেন ৪৯ শতাংশ। ট্রাম্পের পক্ষে ৩৯ শতাংশ।

মূলত দু’টি ঘটনা ট্রাম্পের ভাবমূর্তিতে জোর ধাক্কা দিয়েছে। গত ৩ সেপ্টেম্বর আটলান্টিক পত্রিকায় প্রকাশিত রিপোর্টে মার্কিন সেনাদের প্রতি ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump) অসৌজন্যমূলক মন্তব্য করেছেন বলে জানানো হয়। আর ৯ সেপ্টেম্বর ওয়াশিংটন পোস্টের প্রবীণ সাংবাদিক বব উডওয়ার্ডের প্রকাশিত রেকর্ডিং থেকে জানা গিয়েছে, করোনার ভয়াবহতা সম্পর্কে জানা সত্ত্বেও তা হালকা করে দেখিয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন ট্রাম্প। নয়া সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, প্রায় প্রতিটি ইস্যুতেই নথিভুক্ত ভোটাররা ট্রাম্পের উপর অনাস্থা প্রদর্শন করেছেন। করোনা মোকাবিলায় ট্রাম্পের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট ৫৭%, সন্তুষ্ট মাত্র ৪০%। ট্রাম্পের বদলে বিডেন ক্ষমতায় থাকলে পরিস্থিতি এতটা খারাপ হত না বলে মনে করছেন ৪৮ শতাংশ মানুষ। আর ভিন্ন মত রয়েছে ৩১ শতাংশের।

[আরও পড়ুন: জল্পনায় ইতি টেনে জাপানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন ইওশিহিদে সুগা ]

‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ আন্দোলন নিয়ে ট্রাম্পের পক্ষে মাত্র ৩৭%। বিপক্ষে ৫৪%। ট্রাম্পের চেয়ে বিডেন পরিস্থিতি ভালভাবে সামলাতে পারতেন, মনে করেন ৪৯%। তবে এই মত সমর্থন করেন না ৩৪%। নির্বাচনী প্রচারে ট্রাম্প বারবার আক্রমণ শানাচ্ছেন যে বিডেন ক্ষমতায় এলে শহরতলিগুলি নষ্ট হয়ে যাবে। কিন্তু, বিডেন এমন কিছু করবেন না বলেই মনে করেন ৪৬% ভোটার। সবচেয়ে বড় কথা, ট্রাম্প পুনর্নির্বাচিত হলে হিংসা বাড়বে বলে মনে করেন ৬১% মানুষ। ‘হিংসা কমবে’র পক্ষে মাত্র ২০%। নির্বাচনের আগে করোনার টিকা এলেও ট্রাম্পকে বাঁচাতে পারবে না। কারণ সমীক্ষা বলছে, ভোটের আগে আসা টিকা ‘নিরাপদ’ মনে করছেন মাত্র ১৬%। ভোটারদের ৬০ শতাংশই মনে করেন, এটা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

এই পরিস্থিতিতে বব উডওয়ার্ডের বই (দ্য রেজ) উদ্ধৃত করে ফের ট্রাম্পকে আক্রমণ করেছেন কমলা হ্যারিস। ১৫ সেপ্টেম্বর বইটি প্রকাশিত হওয়ার কথা। করোনার জেরে আমেরিকায় এত মৃত্যুর জন্য ট্রাম্পকে দায়ী করে হ্যারিস টুইট করেন, ‘ট্রাম্প যখন বলছিলেন যে তরুণরা করোনা আক্রান্ত হবে না, তখন তিনি জানতেন যে তা সম্ভব। ট্রাম্প যখন বলছিলেন, এটি ফ্লু—র মতোই সাধারণ, তখন তিনি জানতেন যে, এটি ভয়ংকর। ট্রাম্প যখন ইচ্ছাকৃতভাবে এর তীব্রতা তুচ্ছ করে দেখিয়েছিলেন, তখন তিনি জানতেন যে এটি বাতাসের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তিনি সব জানতেন।’

[আরও পড়ুন: বিষ দেওয়া হয়েছিল নাভালনিকে, এবার নিশ্চিত করল ফ্রান্স ও সুইডেন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement