১৪  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘দ্বিতীর বিশ্বযুদ্ধের পাঠ ভূলে গিয়েছে রাশিয়া’, রুশ বিদেশমন্ত্রীর হিটলার মন্তব্যের পালটা জেলেনস্কির

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: May 3, 2022 9:35 am|    Updated: May 3, 2022 9:35 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘দ্বিতীর বিশ্বযুদ্ধের পাঠ ভূলে গিয়েছে রাশিয়া’। এভাবেই রুশ বিদেশমন্ত্রীর হিটলার মন্তব্যের পালটা দিলেন ইউক্রেনের (Ukraine) প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তাঁর তোপ, হিটলারের শরীরে ইহুদি রক্ত রয়েছে বলে রুশ বিদেশমন্ত্রীর মন্তব্য এটা স্পষ্ট যে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পাঠ ভূলে গিয়েছে রাশিয়া। অথবা তারা আদৌ কোনও শিক্ষাই নেয়নি।

[আরও পড়ুন: বহুমূল্য BMW গাড়ি থেকে উপহারের বন্দুক, সরকারি সম্পত্তি হাপিশ করেছেন ইমরান খান!]

গতকাল ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কিকে (Volodymyr Zelenskyy) ‘হিটলার’ বলে অভিহিত করেন রাশিয়ার বিদেশমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ। তিনি বলেন, “ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি ইহুদি হলেও তাঁর নাৎসি যোগ উড়িয়ে দেওয়া যায় না। হিটলারও অর্ধেক ইহুদি ছিলেন। জেলেনস্কি ও হিটলারের শরীরে একই ইহুদি রক্ত বইছে।” হিটলারের ইহুদি বিদ্বেষ এবং তাদের উপর ভয়াবহ অত্যাচারের কথা সকলেরই জানা। এই মন্তব্যের কারণেই বিতর্কের সূত্রপাত। সোমবার এই ঘটনার প্রেক্ষিতে কমেডিয়ান থেকে দেশনায়ক হয়ে ওঠা জেলেনস্কি বলেন, “এর প্রতিবাদ করার ভাষা আমার কাছে নেই। এখনও এই বিষয়ে মস্কো চুপ করে আছে। অর্থাৎ আমরা ধরে নিতে পারি যে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ থেকে রাশিয়া কিছুই শিক্ষা নেয়নি।”

প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু আগে নাৎসি জার্মানি ও সোভিয়েত ইউনিয়নের দহরম মহরম অজানা নয়। তবে হিটলার চুক্তি ভঙ্গ করে হামলা চালালে পরিস্থিতি বদলে যায়। ফলে রাশিয়ার বিদেশনীতিতে নাৎসিবাদ যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। মস্কোর দাবি, বর্তমানে ইউক্রেন উত্থান হয়েছে নব্য নাৎসিদের। আর সেই বিপদ ঠেকাতেই আক্রমণ। মনে করা হয়, রুশ নিরাপত্তা পরিষদের প্রধান নিকোলাই পেত্রোশেভ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে (Vladimir Putin) বুঝিয়েছেন, কিয়েভ নব্য-নাৎসিদের গড় হয়ে উঠেছে। সেই কারণেই ইউক্রেনে হামলা চালিয়েছেন পুতিন।

এদিকে, পূর্ব ইউক্রেনে ভয়াবহ লড়াই চলছে রুশ ও ইউক্রেনের ফৌজের মধ্যে। এহেন পরিস্থিতিতে অবরুদ্ধ মারিওপোলের আজভস্টাল ইস্পাত কারখানায় প্রায় দু’মাস ধরে আটকে থাক শতাধিক মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার ওই অভিযানে পুরোদমে সাহায্য করেছে রাষ্ট্রসংঘ ও রেড ক্রস। প্রাথমিক চিকিৎসার পরে তাঁদের উত্তর-পশ্চিমের দিকে পাঠানো হয়েছে। এখনও কয়েকশো মানুষ কারখানার নীচে টানেলের অন্ধকারে আটকে। অন্তত পাঁচশো সেনা জখম অবস্থায় রয়েছেন। জল নেই, খাবার নেই, অক্সিজেনেরও অভাব। এ দিকে, আজ উদ্ধারকাজ শেষ হতেই ফের গোলাবর্ষণ শুরু করেছে রাশিয়া।

[আরও পড়ুন: ‘জেলেনস্কি ও হিটলারের শরীরে বইছে ইহুদি রক্ত’, রুশ বিদেশমন্ত্রীর মন্তব্যে ক্ষুব্ধ ইজরায়েল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে