BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এবার চিনকে জোর ধাক্কা রাশিয়ার, সরবরাহ করা হবে না S-400 মিসাইল সিস্টেম

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: July 27, 2020 4:10 pm|    Updated: July 27, 2020 4:10 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অতি আগ্রাসী মনোভাবের জন্য বিশ্বমঞ্চে কার্যত একঘরে হয়ে পড়েছে চিন (China)। দক্ষিণ চিন সাগর নিয়ে মার্কিন রোষের মুখে পড়ার পর এবার কমিউনিস্ট দেশটিকে জোর ধাক্কা দিয়েছে রাশিয়াও (Russia)। নয়া সমীকরণ তৈরি করে আপাতত বেজিংকে অত্যাধুনিক S-400 মিসাইল সিস্টেম সরবরাহ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মস্কো।

[আরও পড়ুন: ফের কথার খেলাপ চিনের, লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় ১৪টি কামান বসাল লালফৌজ]

তাৎপর্যপূর্ণভাবে, দেশের বায়ুসীমা সুরক্ষিত রাখতে রুশ নির্মিত এই S-400 মিসাইল সিস্টেম ভারতও কিনেছে৷ ফলে বিশ্লেষকদের মতে, পূর্ব লাদাখে চিনা আগ্রাসনের জবাবে ‘বন্ধু’ ভারতকে আশ্বস্ত করতেই এই পদক্ষেপ করেছে রাশিয়া। একই অভিযোগ তুলেছে চিনও। এক বিবৃতি দিয়ে বেজিংয়ের অভিযোগ, তৃতীয় কোনও দেশের (ভারত) ইশারাতেই তাদের মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম সরবরাহ করতে চাইছে না রাশিয়া৷ নাম না করলেও ভারতের দিকেই যে ইঙ্গিত করেছে বেজিং তা স্পষ্ট৷ তবে প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের মতে, সম্প্রতি চরবৃত্তির অভিযোগে মস্কো ও বেজিংয়ের সম্পর্কে ফাটল ধরেছে। চিনের হাতে গোপন তথ্য তুলে দেওয়ার অভিযোগে, সেন্ট পিটার্সবার্গ আর্কটিক সোশ্যাল সায়েন্স অ্যাকাডেমির প্রেসিডেন্ট বেলেরি মিটকোকে গ্রেপ্তার করেছিল রাশিয়া৷

চিনা পত্রিকা ‘Sohu’-তে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মিসাইল সিস্টেমটি সরবরাহ নিয়ে একাধিক জটিলতার বিষয় তুলে ধরেছে মস্কো। যেমন, এই হাতিয়ারটি পৌঁছে দিতে এবং এর ব্যবহারের জন্য প্রশিক্ষণ দিতে রুশ সেনার অধিকারিকদের চিন যেতে হবে। একইভাবে চিনা সেনার অধিকারিকদেরও প্রশিক্ষণের জন্য রাশিয়া আসতে হতে পারে। কিন্তু করোনা মহামারীর আবহে তা সম্ভব নয়। তাই আপাতত ই অস্ত্রগুলি সরবরাহ করা সম্ভব নয়। প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে রাশিয়ার কাছ থেকে S-400 মিসাইল সিস্টেমের প্রথম ব্যাচ চিনের হাতে আসে। সেই কথা মাথায় রেখে, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের রাশিয়া সফরের সময়ই পুতিন সরকার এই মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল৷ আগামী ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই তা ভারতের হাতে চলে আসবে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে ভারতকে সময়মতো এই মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম সরবরাহ করলেও চিনের ক্ষেত্রে উল্টোপথে হেঁটেছে মস্কো৷

উল্লেখ্য, পাঁচটি অত্যাধুনিক এস-৪০০ (S400) ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী ব্যবস্থা ক্রয় করতে ২০১৮ সালের অক্টোবরে মস্কোর সঙ্গে ৫৪৩ কোটি মার্কিন ডলারের চুক্তি করেছিল দিল্লি। গত ফেব্রুয়ারিতে ‘ফেডারেল সার্ভিস অফ মিলিটারি টেকনিক্যাল কার্পোরেশন অফ রাশিয়া’র ডেপুটি ডিরেক্টর ভ্লাদিমির দ্রঝভ জানিয়েছিলেন, ২০২১ সালের মধ্যেই প্রথম এস-৪০০ সিস্টেম হাতে পাবে ভারত।

[আরও পড়ুন: তিব্বতে তৎপর লালফৌজ, উপগ্রহ চিত্রে প্রকাশ্যে ‘ড্রাগনে’র অভিসন্ধি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement