BREAKING NEWS

২৪ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ৮ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নাভালনির সংস্থাকে জঙ্গি সংগঠনের তালিকাভুক্ত করার চেষ্টা পুতিন প্রশাসনের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: April 27, 2021 10:38 am|    Updated: April 27, 2021 12:18 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আরও চাপ বাড়ল রাশিয়ার জেলবন্দি বিরোধী নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনির (Alexei Navalny) উপর। এবার তাঁর সংস্থা ‘অ্যান্টি করাপশন ফাউন্ডেশন’-কে (FBK) উগ্রপন্থী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা করা হতে পারে।

[আরও পড়ুন: পণ্যবাহী বিমানে নিষেধাজ্ঞা চিনের, করোনা আবহে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম পেতে সমস্যায় ভারত]

সংবাদ সংস্থা এএফপি সূত্রে খবর, মস্কোর একটি আদালতে নাভালনির সংস্থাটিকে ‘সন্ত্রাসবাদী ও উগ্রপন্থী’ সংগঠনের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার আবেদন জানিয়েছে সরকার। ইতিমধ্যে আদালতের নির্দেশে নিজেদের সমস্ত কর্মসূচি বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছে ‘অ্যান্টি করাপশন ফাউন্ডেশন’ বা এফবিকে। তবে সংস্থাটিকে এখনও উগ্রপন্থী তকমা দেওয়া হয়নি বলে সোমবার জানিয়েছে আদালত। এদিকে, এফবিকে’র ডিরেক্টর ইভান ঝাদানভ নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে জানিয়েছেন যে, এফবিকে ও নাভালনির দপ্তরের সমস্ত কাজকর্ম বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম টেলিগ্রামে নাভালনির দপ্তরের তরফে এক বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয় যে সংগঠনটি আর কাজ করতে পারছে না। তবে অন্যভাবে রাশিয়ার শাসকদল ‘ইউনাইটেড রাশিয়া’ ও প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই চলবে বলে জানানো হয়েছে সংস্থাটির তরফে।

বর্তমানে রাশিয়ার ‘সন্ত্রাসবাদী ও উগ্রপন্থী’ সংগঠনের তালিকায় ইসলামিক স্টেট, আল কায়দার মতো ৩৩টি সংগঠন রয়েছে। সেই তালিকায় ‘অ্যান্টি করাপশন ফাউন্ডেশন’-কে অন্তর্ভুক্ত করলে কার্যত কোণঠাসা হয়ে পড়বেন প্রেসিডেন্ট পুতিনের প্রবল সমালোচক অ্যালেক্সেই নাভালনি। ধাক্কা খাবে ক্রেমলিনের অন্দরে চলা দুর্নীতির বিরুদ্ধে তাঁর লড়াই। উল্লেখ্য, বহুদিন ধরেই পুতিন প্রশাসনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে সরব অ্যালেক্সেই নাভালনি। ক্রেমলিনের অন্দরে টাকা নয়ছয় ও ক্ষমতার অপব্যবহার নিয়ে অতীতে বহু তথ্য ফাঁস করেছে নাভালনির সংস্থা ‘অ্যান্টি করাপশন ফাউন্ডেশন’। ফলে পুতিনের বিষনজরে রয়েছেন তিনি বলেই মত ওয়াকিবহাল মহলের। গত আগস্ট মাসের ২০ তারিখ সাইবেরিয়ার টমস্ক থেকে বিমানে মস্কো ফিরছিলেন নাভালনি। মাঝ আকাশে আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। উপায় না দেখে টমস্ক শহরে বিমানের জরুরি অবতরণ করিয়ে শুরু হয় চিকিৎসা। নাভালনি ঘনিষ্ঠদের প্রাথমিক ধারণা, ওমস্ক বিমানবন্দরে তাঁর চায়ে বিষ মেশানো হয়েছে। চিকিৎসকরা জানান, নাভালনির স্নায়ুতন্ত্র ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ছিল। বার্লিনে তাঁর চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে ওঠেন তিনি। রাশিয়ায় ফিরতেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

[আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় আলোচনা, ফোনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেনের সঙ্গে কথা মোদির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement