BREAKING NEWS

৩০ আশ্বিন  ১৪২৮  রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিমান ‘হাইজ্যাক’ কাণ্ডে বিপাকে বেলারুশ, নিষেধাজ্ঞার পক্ষে সওয়াল বাইডেনের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: May 25, 2021 8:57 am|    Updated: May 25, 2021 8:57 am

Ryanair plane incident: Welcome EU call for sanctions on Belarus: Joe Biden | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাঝ আকাশ থেকে যাত্রীবাহী বিমান ‘হাইজ্যাক’ করার ঘটনায় আন্তর্জাতিক মঞ্চের কোপে বেলারুশ। সোমবার পূর্ব ইউরোপের দেশটির বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার পক্ষে মত দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (Joe Biden)।

[আরও পড়ুন: অ্যান্টিগায় নিখোঁজ ‘হীরক রাজা’ মেহুল চোকসি, চাঞ্চল্যকর দাবি আইনজীবীর]

রবিবার সমাজকর্মী তথা সরকার বিরোধী এক সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করতে লিথুয়ানিয়ার উদ্দেশে পাড়ি দেওয়া ‘রায়ানএয়ার’-এর একটি বিমানের গতিপথ ঘুরিয়ে রাজধানী মিনস্কে নামতে বাধ্য করে বেলারুশ (Belarus)। তারপর থেকেই ইউরোপ ও আমেরিকা-সহ আন্তর্জাতিক মহলের তীব্র নিন্দার মুখে পড়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো। তবে তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছে রাশিয়া। এদিকে, পূর্ব ইউরোপের দেশটির বিরুদ্ধে আর্থিক নিষেধাজ্ঞা জারি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। সেই পদক্ষেপকে সমর্থন জানিয়ে বাইডেন বলেন, “বেলারুশের বিরুদ্ধে আর্থিক নিষেধাজ্ঞা জারি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। আমি এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানাই। আমিও দোষীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করার জন্য আমার প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট অধিকারিকদের নির্দেশ দিয়েছি। আমি মনে করি সাংবাদিক রোমান প্রোতেসেভিচের গ্রেপ্তারই আন্তর্জাতিক আইনের পরিপন্থী।”

উল্লেখ্য, যাত্রীবাহী বিমান সংস্থা ‘রায়ানএয়ার’-এর ফ্লাইট এফআর-৪৯৭৮ গ্রিসের এথেন্স থেকে লিথুয়ানিয়ার রাজধানী ভিলনিয়াসে যাচ্ছিল। ওই প্লেনে সওয়ার ছিলেন বেলারুশের ‘বিদ্রোহী’ সাংবাদিক রোমান প্রোতেসেভিচ। লিথুয়ানিয়া সীমান্তে পৌঁছানোর আগেই মিগ-২৯ ফাইটার জেট পাঠিয়ে বিমানটিকে পূর্বদিকে ঘুরিয়ে বেলারুশের রাজধানী মিনস্কে নিয়ে আসা হয়। ফ্লাইটটিতে ১৭১ জন যাত্রী ছিলেন। বিমানটি নামার পরই গ্রেপ্তার করা হয় বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কোর প্রবল সমালোচক প্রোতেসেভিচকে। যদিও দেশটির সরকারি সংবাদমাধ্যম দাবি করে, বোমাতঙ্কের কারণে উড়োজাহাজটির গতিপথ ঘুরিয়ে সেটিকে মিনস্কে জরুরি অবতরণ করানো হয়। যদিও তল্লাশি শেষে কোনও বোমা তাতে পাওয়া যায়নি। তারপর প্রায় পাঁচ ঘণ্টা পর বিমানটিকে গন্তব্যের উদ্দেশে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: বাজতে চলেছে যুদ্ধের দামামা? তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা বলয়ে ঢুকল চিনা যুদ্ধবিমান]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement