BREAKING NEWS

৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৪ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সেনেট দখলের লড়াইয়ে জোর ধাক্কা ডেমোক্র্যাটদের, অটুট রিপাবলিকান গড়

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: November 5, 2020 11:41 am|    Updated: November 5, 2020 11:41 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টানটান উত্তেজনার মধ্যে ভোটগণনা চলছে আমেরিকায়। প্রেসিডেন্ট পদের দৌড়ে বেশ কিছুটা এগিয়ে থাকলেও নিশ্চিন্ত হতে পারছেন না জো বিডেন। পরাজয়ের ইঙ্গিত পেয়ে কোর্ট দেখাচ্ছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump)। এহেন পরিস্থিতিতে ভোট চলছে মার্কিন কংগ্রেসেরও। সদনের নিম্নকক্ষ হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস ও উচ্চকক্ষ সেনেট-এর সদস্য নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে সমান্তরালভাবে। কিন্তু এখানে কিছুটা স্বস্তিতে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের দল। প্রাথমিক ফলাফল বলছে যে সেনেটের দখল বজায় রাখতে সক্ষম হবে রিপাবলিকান পার্টি। তবে কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ থাকবে ডেমোক্র্যাটদের দখলে।

[আরও পড়ুন: নাটকীয় নির্বাচনে হোয়াইট হাউস দখলের পথে বিডেন, গণনা রুখতে মামলা ট্রাম্প শিবিরের]

বর্তমানে ১০০ সদস্যের সেনেটে ৫৩টি আসন নিয়ে সংখ্যাগুরু রিপাবলিকানরা। ডেমোক্র্যাটদের দখলে ৪৭টি আসন। ফলে আরও তিনটি আসন পেলেই উচ্চকক্ষে বাজিমাত করতে পারবে বিডেনের (Joe Biden) দল। তবে সেনেটের সব আসনে একসঙ্গে ভোট হয় না। প্রতি দু’বছর অন্তর এক তৃতীয়াংশ আসনে ভোট হয়। এ বার ভোট হবে ৩৫টি আসনে। সেই হিসেব করেই রীতিমতো ঝাপিয়ে পড়েছিলেন ডেমোক্র্যাটরা। কিন্তু প্রাথমিক ফল আসতে দেখা যাচ্ছে, সেনেটের দখল বজায় রাখতে সক্ষম হয়েছে রিপাবলিকান পার্টি। এদিকে, ৪৩৫টি আসনের হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস-এর দখল বর্তমানে ডেমোক্র্যাটদের হাতে। শেষ পাওয়া খবরের মতে, এই নির্বাচনেও নিম্নকক্ষের দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থীরাই। হাউসে বর্তমানে রিপাবলিকানদের দখলে রয়েছে ১৯৭টি আসন। জিততে গেলে চাই ২১৮টি আসন। সাধারণত নির্বাচনের রাতেই হাউসের ভোটের ফল ঘোষণা হয়। তবে করোনা মহামারীর জেরে এবছরে ভোটগণনায় দেরি হওয়ায় ফলাফল জানতে আরও সময় লাগতে পারে। তবে বিভিন্ন সংবাদ সংস্থার সমীক্ষা অনুযায়ী, হাউসে ডেমোক্র্যাটদের এগিয়ে থাকার সম্ভাবনাই বেশি। হাউসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির দল ডেমোক্র্যাটরা অন্তত আরও কয়েকটি আসনে জিতবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মতোই মার্কিন কংগ্রেসের নির্বাচনও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, প্রেসিডেন্সিয়াল ইলেকশনে যে দলই জিতুক না কেন, নতুন কোনও আইন পাশ হতে গেলে কংগ্রেসের দুই কক্ষ–হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস ও সেনেটের অনুমোদন প্রয়োজন। তবে এ ক্ষেত্রে সেনেটের গুরুত্ব বেশি। আইন পাশ করা-সহ বিভিন্ন বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের পাশাপাশি প্রেসিডেন্ট-সহ গুরুত্বপূর্ণ পদে জয়ী প্রার্থীদের নিয়োগপত্র সুপ্রিম কোর্ট পেশ করে সেনেটই। ফলে প্রেসিডেন্ট পদে বিডেন বসলেও, সেনেটে রিপাবলিকানরা সংখ্যাগুরু থাকায় তাঁকে শাসন চালাতে যথেষ্ট বেগ পেতে হবে বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

এদিকে, ডেমোক্র্যাটদের হয়ে ভোটে দাঁড়িয়ে জয় পেয়েছেন ‘সামোসা ককাস’ বা ভারতীয় বংশোদ্ভূত রাজা কৃষ্ণমূর্তি (ইলিনয়), ডাঃ অমি বেরা (ক্যালিফোর্নিয়া), প্রমীলা জয়পাল (ওয়াশিংটন) এবং রো খান্না (ক্যালিফোর্নিয়া)। এর মধ্যে রাজা কৃষ্ণমূর্তি তৃতীয় বারের জন্য হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভে নির্বাচিত হলেন। দিল্লিতে জন্ম নেওয়া কৃষ্ণমূর্তির বয়স বর্তমানে ৪৭ বছর। তিনি তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী লিবারেটিয়াল পার্টির প্রার্থীর থেকে প্রায় ৭১ শতাংশ ভোট বেশি পেয়েছেন। এর আগে ২০১৬ সালে প্রথমবারের জন্য নির্বাচিত হয়েছিলেন তামিলনাড়ুর দম্পতির সন্তান কৃষ্ণমূর্তি।

[আরও পড়ুন: নির্বাচনী অনিশ্চয়তায় হিংসা ছড়াতে পারে বিদেশি শক্তি, আশঙ্কা মার্কিন গোয়েন্দাদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement