BREAKING NEWS

৯ আষাঢ়  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মনে নেই ঠিকানা, সাজা শেষেও পাকিস্তানের জেলে আটকে ১৭ ‘ভারতীয়’

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: June 7, 2021 9:18 am|    Updated: June 7, 2021 9:18 am

Six yrs later, no clue about ‘mentally unsound’ Indians lodged in Pak jails | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাজার মেয়াদ শেষ হলেও হচ্ছে না দেশে ফেরা। পাকিস্তানের জেলেই আটকে রয়েছেন ১৭ জন ‘ভারতীয়’। ইসলামাবাদের দাবি, দীর্ঘদিন কারাগারে থাকার পর মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন ওই বন্দিরা। ফলে কিছুতেই বাড়ির ঠিকানা মনে করতে পারছেন না তাঁরা।

[আরও পড়ুন: ফুটফুটে সন্তানের জন্ম দিলেন ব্রিটিশ রাজবধূ মেগান, কী নাম সদ্যোজাতের?]

এদিকে, সাজা শেষ হলেও কারাগারে আটকে থাকা ওই বন্দিদের নিজের দেশে ফেরাতে উদ্যোগী হয়েছে পাকিস্তান। ইসলামাবাদের ভারতীয় হাইকমিশন মারফত ওঁদের ছবি পাঠানো হয়েছে নয়াদিল্লির কাছে। তা নিজেদের ওয়েবসাইটে পোস্ট করেছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। ছবি পাঠানো হয়েছে এ দেশের কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল আর রাজ্যগুলিতেও। কিন্তু এত কিছুর পরও কারও পরিজনের খবর মেলেনি। ফলে সাজার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর ছয় বছর কেটে গেল ওঁরা কেউই ঘরে ফিরতে পারেননি। সম্প্রতি ভারতীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের এক নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, ওঁদের বিষয়ে কেউ কোনও তথ্য দিতে পারলে যেন তৎক্ষণাৎ যোগাযোগ করা হয়।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানের বিভিন্ন জেলে বন্দি ওই ১৭ জনের পরিচয় ২০১৫ সালেই প্রকাশ করেছিল ইসলামাবাদ। বন্দিদের মধ্যে ৪ জন মহিলা রয়েছেন বলে খবর। গুল্লু জান, আজমিরা, নকায়া আর হাসিনা- জেলেই নতুন নাম পেয়েছেন তাঁরা। পাকিস্তানের দাবি, ওঁরা ভারতের বাসিন্দা। কিন্তু এর বেশি কেউ কোনও তথ্য দিতে পারছেন না। অনেকেরই বয়স হয়েছে। কারও কাছে নাগরিকত্বের প্রমাণ নেই। ওঁদের পরিবারের কেউ এগিয়ে না এলে ওঁদের ভারতে ফেরানোও তাই সম্ভব নয়। বলে রাখা ভাল, পৃথক রাষ্ট্র গঠনের পর থেকেই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বন্দি বিনিময় চলছে। একাধিকবার দুই দেশের মধ্যে প্রচণ্ড সংঘাত বাঁধলেও বন্দিদের বিনিময় প্রক্রিয়ায় সেই অর্থে কোনও প্রভাব পড়েনি। বছরে দু’বার বন্দিমুক্তির তালিকা প্রকাশ করে দুই দেশ। এবারের পাকিস্তানের প্রকাশিত সেই তালিকায় নাম রয়েছে ওই ১৭ জনের।   

[আরও পড়ুন: ‘কোনও আইন ভাঙিনি, চিকিৎসা করাতেই দেশ ছাড়ি,’ ডোমিনিকা হাই কোর্টে সাফাই চোকসির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement