BREAKING NEWS

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ৫ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘চিকিৎসার মাধ্যমে কমানো যাচ্ছে করোনার ভয়াবহতা’, আশার কথা শোনাল WHO

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 13, 2020 10:55 am|    Updated: May 13, 2020 10:55 am

Some treatments limiting the severity or length of the Covid-19, says WHO

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার দাওয়াই বা টিকার জন্য মরিয়া চেষ্টা চলছে বিশ্বজুড়ে। এই মহামারি থেকে উদ্ধার পেতে গবেষকদের দিকে চাতকের মতো তাকিয়ে আছে গোটা দুনিয়া। এরই মধ্যে কিছুটা স্বস্তির খবর দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (World Health Organization)। WHO বলছে, কয়েকটা চিকিৎসা পদ্ধতির মাধ্যমে করোনার ভয়াবহতা এবং অসুস্থতার দৈর্ঘ্য দুটোই কমানো যাচ্ছে। তবে, এ বিষয়ে আরও গবেষণার প্রয়োজন।

মঙ্গলবার এক সাংবাদিক বৈঠকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মুখপাত্র মার্গারেট হ্যারিস (Margaret Harris) বলছেন, “খুব প্রাথমিক পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী এখন আমাদের কাছে এমন কিছু চিকিৎসা পদ্ধতি আছে, যা এই রোগের ভয়াবহতা এবং অসুস্থতার দৈর্ঘ্য কমাতে পারে। তবে এখনও আমাদের হাতে এমন কোনও ওষুধ নেই যা এই ভাইরাসকে মেরে ফেলতে পারে বা আটকে দিতে পারে।” WHO-এর ইঙ্গিত তাঁরা একাধিক চিকিৎসা পদ্ধতি নিয়ে গবেষণা করছে। এবং অনেক চিকিৎসা পদ্ধতিই সাড়া দিচ্ছে। তবে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখনই এটা বলার মতো অবস্থায় নেই যে, এটাই করোনার চিকিৎসার শ্রেষ্ঠ উপায়। হ্যারিস বলছেন, “আমরা বেশ কিছু জায়গা থেকে ভাল খবর পাচ্ছি। তবে, আরও কিছুটা সময় দিতে হবে এটা বলতে যে, এই চিকিৎসা পদ্ধতিই করোনার জন্য সবচেয়ে ভাল।”

[আরও পড়ুন: ইউহানে ফের মাথাচাড়া দিচ্ছে করোনা, হবে ১ কোটি মানুষের কোভিড পরীক্ষা]

এদিন আরও একবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই মুখপাত্র মনে করিয়ে দিয়েছেন, COVID-19 অত্যন্ত জটিল ভাইরাস। এবং এর টিকা তৈরি নাও হতে পারে। প্রতিষেধক তৈরি হলেই যে সেটা কার্যকরী হবে, তারও কোনও নিশ্চয়তা নেই। উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে বিশ্বের বিভিন্ন গবেষণাগারে ১০০টি টিকা নিয়ে কাজ চলছে। তার মধ্যে বেশ কয়েকটি প্রতিষেধকের প্রয়োগ মানবশরীরে করার কাজ বা ‘হিউম্যান ট্রায়াল’ চলছে। চলতি বছরের শেষের দিকেই আমেরিকার হাতে করোনার প্রতিষেধক চলে আসবে বলে দাবিও করে ফেলেছেন সে দেশের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু WHO বলছে প্রতিষেধকের আশায় বসে না থেকে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখাটাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে