BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিস্ফোরণের আগে শ্রীলঙ্কার হোটেলে ঢোকে ফিদায়েঁ জঙ্গি! প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর ভিডিও

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 25, 2019 11:43 am|    Updated: April 25, 2019 1:08 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পরপর আটটি বিস্ফোরণের আতঙ্ক থেকে এখনও বেরোতে পারেনি দারচিনি দ্বীপ। মানুষের মধ্যে গেঁথে গিয়েছে চার্চ ও হোটেলগুলিতে হামলার ভয়ানক ছবি। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে ভারত সতর্ক করার পরও কেন সেই কথায় কান দিল না শ্রীলঙ্কা? দেশের এই পরিস্থিতিতে প্রকাশ্যে এল দু’টি চাঞ্চল্যকর সিসিটিভি ফুটেজ।

প্রথম ফুটেজটি প্রকাশ করেছে একটি সংবাদ সংস্থা। ফুটেজে যে হোটেলটি দেখা গিয়েছে, তার নাম সাংগ্রি লা হোটেল। কলম্বোর একটি ফাইভস্টার হোটেল এটি। রবিবার এই হোটেলেও হয় বিস্ফোরণ। শ্রীলঙ্কার একটি টেলিভিশন চ্যানেলে ফুটেজটি দেখানো হয়েছে। সেখানে দেখা গিয়েছে, দু’জন ব্যক্তি হোটেলের আশপাশে ঘোরাঘুরি করছিল। তাদের মাথায় ছিল নীল টুপি, পিঠে ছিল ব্যাগ। এরপর হোটেলে ঢুকে এলিভেটার দিয়ে উঠে যায় তারা। এদের মধ্যে একজন রেস্তরাঁয় ঢুকে ইতস্তত ঘুরছিল। ফুটেজে এটুকুই দেখা গিয়েছে। খবর, বিস্ফোরণের আগের মুহূর্তের সিসিটিভিতে এই চিত্রই ধরা পড়েছে। আপাতত এই ভিডিওটি তদন্তের কাজে ব্যবহার করছেন গোয়েন্দারা।

[ আরও পড়ুন: নিরাপত্তায় গলদ, পদ খোয়ালেন শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা সচিব ও পুলিশ প্রধান ]

এছাড়া আরও একটি সিসিটিভি ফুটেজও প্রকাশ্যে এসেছে। সেটি সেন্ট সেবাস্তিয়ান চার্চের। সেখানে দেখা গিয়েছে, চার্চে এক ব্যক্তি ঢুকছে। কাঁধে তারও ব্যাকপ্যাক। চার্চে ঢুকে সোজা ভিতরের দিকে চলে যান তিনি। তারপরই সেখানে বিস্ফোরণ ঘটে। শ্রীলঙ্কার যে আটটি জায়গায় বিস্ফোরণ হয় সেন্ট সেবাস্তিয়ান চার্চ ও সাংগ্রি লা হোটেল ছিল তার মধ্যে দু’টি জায়গা। এই ধারাবাহিক বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে এখন হয়েছে ৩৫৯। তার মধ্যে অন্তত ১০ জন ভারতীয়ও রয়েছেন। মঙ্গলবারই এই হামলার দায় স্বীকার করেছে ইসলামিক স্টেট জঙ্গি গোষ্ঠী। বিস্ফোরণে জড়িত সন্দেহে ইতিমধ্যেই প্রায় ৬০ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের মধ্যে কয়েকজনকে শনাক্তও করা সম্ভব হয়েছে বলে খবর।

এদিকে আতঙ্কের রেশ কাটতে না কাটতেই ফের বিস্ফোরণের আতঙ্ক শ্রীলঙ্কায়। বুধবার ভোর ৬টা নাগাদ কলম্বোয় একটি বোমা উদ্ধার করেছে পুলিশ। কলম্বো জুড়েই শুরু হয়েছে জোরদার তল্লাশি। কলম্বোর শহরতলি এলাকায় একটি মোটরবাইকে ওই বোমাটি লুকিয়ে রাখা ছিল। স্থানীয় একটি শপিং মলের কর্তব্যরত নিরাপত্তারক্ষীর নজরে আসে বোমাটি। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশে খবর দেওয়া হয়।

[ আরও পড়ুন: ইস্টার হামলার জের, শ্রীলঙ্কায় নিষিদ্ধ হতে পারে বোরখা    ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement