BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সমালোচনা বন্ধের চেষ্টা সরকারের পক্ষে ক্ষতিকারক, বলছেন রঘুরাম রাজন

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: October 24, 2019 7:29 pm|    Updated: October 24, 2019 7:34 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সমালোচনা বন্ধের চেষ্টা সরকারের পক্ষে ক্ষতিকারক হতে পারে। ভারতীয় অর্থনীতি প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে এই মন্তব্যই করলেন রিজার্ভ ব্যাংকের প্রাক্তন গভর্নর রঘুরাম রাজন। বুধবার লন্ডনের কিং’স কলেজের ইন্ডিয়া টাউন হলে বক্তব্য রাখতে গিয়ে একথা বলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: বিতর্কিত প্রত্যর্পণ বিল প্রত্যাহারের ঘোষণা হংকংয়ের, এবার কি ফিরবে শান্তি?]

ভারতীয় অর্থনীতির বর্তমান হাল সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘প্রথমে আমি ভেবেছিলাম অর্থনীতির নিয়মেই এই সংকটের সম্মুখীন হয়েছে ভারত। কিন্তু, বিষয়টির গভীরে গিয়ে দেখি দীর্ঘদিন ধরেই বিনিয়োগ হয়নি এখানে। যার ফল দেখা গিয়েছে গত তিনটি ত্রৈমাসিকের খতিয়ানে। অর্থনীতির মন্দগতিতে হাল ক্রমশ খারাপ হয়েছে। আমার মনে হয়, এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ শোনা উচিত। এতে আখেরে সরকারেরই লাভ। কিন্তু, তার বদলে যদি ক্ষমতার জোরে সমালোচকদের মুখ বন্ধ করা হয়। তাহলে তার ফল ভাল হবে না।’

তাঁর কথায়, ভাল কথা বললে বা প্রশংসা করলে সবারই আনন্দ লাগে। কিন্তু, তাতে স্বার্থসিদ্ধি হয় না। বরং ঠিক সময়ে সমালোচনা শুনলে নিজেকে শোধরানোর সুযোগ পাওয়া যায়। আর তা শোনার অভ্যাস না থাকলে পরবর্তী সময়ে বড় সমস্যা তৈরি হয়। জোর করে সমালোচকদের মুখ বন্ধ করার চেষ্টা করছেন মানে আপনি প্রতিক্রিয়া জানতে ভয় পাচ্ছেন। যা আগামীতে ক্ষতিই করবে। আসলে এখন ভারতে এমন এক সরকার রয়েছে যে কেন্দ্রীকরণে বিশ্বাসী। তাই বহু সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকেই নেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন:ট্রাকের মধ্যে মিলল ৩৯টি মৃতদেহ, আতঙ্কে স্তব্ধ লন্ডন]

ন্যাশনাল ইন্ডিয়ান স্টুডেন্টস অ্যান্ড অ্যালুমনি ইউনিয়নের উদ্যোগে মহাত্মা গান্ধীর সার্ধশতবর্ষ জম্মবার্ষিকী উপলক্ষে ইন্ডিয়ান টাউন হলে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখান বক্তব্য রাখার সময় ভারতীয় অর্থনীতির পাশাপাশি গান্ধীবাদী দর্শন নিয়েও নিজের অভিনত স্পষ্ট করেন রাজন। বর্তমান পরিস্থিতি থেকে উদ্ধার পাওয়ার জন্য কেন্দ্রীকরণের পরিবর্তে মহাত্মার শেখানো পথে ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণকেই মান্যতা দিতে বলেন। উপযুক্ত ব্যক্তিদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে, সঠিক পথে হেঁটে দেশের অর্থনীতির হাল ফেরানো সম্ভব বলেও নিজের মতামত ব্যক্ত করেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement