BREAKING NEWS

৫ কার্তিক  ১৪২৮  শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্কুল খোলার দাবিতে মহিলাদের প্রতিবাদ আফগানিস্তানে, মিছিলে গুলি তালিবানের

Published by: Biswadip Dey |    Posted: October 1, 2021 9:01 am|    Updated: October 1, 2021 9:01 am

Taliban open fire to push back protesting women in Kabul। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তালিবান (Taliban) আছে তালিবানেই। আফগানিস্তানে (Afghanistan) নতুন করে ক্ষমতা দখলের পর যতই নারীর অধিকার রক্ষা-সহ নানা বিষয়ে আশ্বাসের বুলি আওড়াক জেহাদিরা, শেষ পর্যন্ত যে তাদের কোনও পরিবর্তনই হয়নি তা বারবার স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। এবার মাসকয়েকের ব্যবধানে ফের মহিলাদের প্রতিবাদ মিছিলে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠল তালিবানের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার পূর্ব কাবুলের (Kabul) এক স্কুলের সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন কয়েকজন মহিলা। তাঁদের দাবি ছিল, অবিলম্বে স্কুল চালু করতে হবে। এবং মেয়েদের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে।

সংবাদসংস্থা এএফপির খবর, বিক্ষোভে হঠাৎই শূন্যে কয়েক রাউন্ড গুলি চালায় তালিবান যোদ্ধারা। ছিনিয়ে নেওয়া হয় তালিবান বিরোধী ব্যানারও। এদিনের বিক্ষোভের খবর সংগ্রহ করতে গিয়েও তালিবানের হাতে কয়েকজন বিদেশি সাংবাদিক নিগৃহীত হন বলেও অভিযোগ। তাঁদের রাইফেলের বাঁট দিয়ে আঘাত করা হয় বলে দাবি।

[আরও পড়ুন:ইকুয়েডরে রক্তগঙ্গা! জেলের মধ্যে তীব্র সংঘর্ষে মৃত ১১৬, ৫ জনের গলা কেটে হত্যা]

এক তালিবান নেতা জানিয়েছেন, প্রতি দেশের মতো এই দেশেও প্রতিবাদ করার অধিকার আছে। কিন্তু কোনও বিক্ষোভ, প্রতিবাদ দেখাতে হলে প্রথমে অনুমতি নেওয়া প্রয়োজন। এদিন স্কুলের সামনে বিক্ষোভে কোনও অনুমতি নেওয়া হয়নি। ‘আমাদের কলম ভেঙে দেওয়া যাবে না, আমাদের বই পুড়িয়ে দেওয়া চলবে না, আমাদের স্কুল এখনই খুলতে হবে’, এই ব্যানার হাতে এদিন বন্ধ ওই স্কুলের সামনে বিক্ষোভ দেখান কয়েকজন মহিলা অভিভাবক। তাঁদের দাবি, শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে অশান্তিতে উসকানি দেয় তালিবান। মহিলাদের হঠাতে শূন্যে গুলি চালায়।

উল্লেখ্য, মেয়েদের প্রতি তাদের দৃষ্টিভঙ্গি যে একটু বদলায়নি তা এই কয়েক সপ্তাহে একেবারে স্পষ্ট করে দিয়েছে তালিবান। কয়েকদিন আগেই কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ে মহিলাদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে জেহাদি সংগঠনটি। জানিয়ে দেওয়া হয়েছে পড়ুয়া, শিক্ষিকা বা শিক্ষাকর্মী, কোনও মহিলাই আর ঢুকতে পারবেন না কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ে। আফগানিস্তানের সবচেয়ে বড় বিশ্ববিদ্যালয়ে এহেন তালিবানি ফতোয়ায় দেশে মহিলাদের শিক্ষা ও অধিকার নিয়ে বড়সড় অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। তার মধ্যেই ফের মহিলাদের মিছিলে গুলি চালিয়ে তালিবান প্রমাণ করে দিল, তাদের কোনও পরিবর্তন হয়নি। প্রথমবারের মতো দ্বিতীয় তালিবান যুগেও আফগান মহিলাদের বাঁচতে হবে প্রশাসনের রক্তচক্ষু ও ফতোয়াকে সঙ্গী করেই।

[আরও পড়ুন: ‘পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করুক বিশ্ব’, ইমরানের দেশকে ‘একঘরে’ করার ডাক আমেরিকার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement