২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বন্ধ হোক অর্থনৈতিক করিডর, ব্রিটেনে চিনা দূতাবাসের সামনে বালোচদের বিক্ষোভ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 27, 2018 6:23 pm|    Updated: June 27, 2018 6:23 pm

The Free Balochistan Movement activists held a protest in front of Chinese Embassy

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিনের মদতে বালোচিস্তানে তাঁদের উপরে অত্যাচার বন্ধ করুক পাক সেনা৷ এই দাবিতে লন্ডনে চিনা দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করলেন ফ্রি বালোচিস্তান মুভমেন্টের সদস্যরা৷ পালন করলেন আন্তর্জাতিক নির্যাতন দিবস৷ দাবি জানালেন, বালোচিস্তানে যে নারকীয় অত্যাচার চালাচ্ছে পাক সেনা তা বন্ধ হোক৷ ফিরিয়ে দেওয়া হোক তাঁদের বাসস্থান৷

[রোহিঙ্গাদের জন্য বিশেষ পরিচয়পত্র তৈরি করছে বাংলাদেশ]

এই আন্দোলনের মুখ হারবাইয়ার মারি জানান, চিন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডরের পথে যে গ্রামগুলি পড়ছে সেগুলিকে পেশি শক্তির জোরে দখল করছে পাক সেনা৷ রাতের অন্ধকারে গায়েব হয়ে যাচ্ছেন গ্রামের যুবকরা৷ কার্যত পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে গ্রামগুলি৷ তাঁদের মৃতদেহ পাওয়া যাচ্ছে গ্রামের বিভিন্ন স্থানে৷ মহিলাদের উপরেও চলছে অত্যাচার৷ মানবাধিকারের গলা টিপে হত্যা করা হচ্ছে৷ নৃশংসতার সমস্ত সীমা সেখানে ছাড়িয়ে গিয়েছে পাক সেনা৷ তাঁর অভিযোগ, এই সমস্ত কিছুই চিনের মদতে করছে পাক সেনা৷ প্রশাসন কার্যত নির্বিকার৷ একই কথা বলছেন ফ্রি বালোচিস্তান মুভমেন্টের আরও এক সদস্য ফৈয়াজ বালুচ৷ তিনি বলেন, চিন কেবল পাকিস্তানের সমস্ত ঋতুরই বন্ধু নয়, সমস্ত অপরাধেরও বন্ধু৷ সেই কারণেই চিনা দূতাবাসের সামনে তাঁদের বিক্ষোভ৷

বালোচিস্তানের বাসিন্দাদের নিজস্ব পতাকা নিয়ে বরাবরই অভিযোগ করে এসেছে চিন৷ কিন্তু এদিনের প্রতিবাদে সেই পতাকা নিয়েই চিনা দূতাবাসের সামনে বালোচদের বিক্ষোভ দেখাতে দেখা গিয়েছে. ব্রিটেনের পুলিশ তাঁদের সেই পতাকা ব্যবহারে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলেও, নিজেদের সিদ্ধান্তে অনড় ছিলেন বিক্ষোভকারীরা৷ কেবল ব্রিটেনই নয়, একই সঙ্গে আমেরিকা ও জার্মানির চিনা দূতাবাসের সামনেও একই ধরেনর বিক্ষোভ প্রদর্শন করার পরিকল্পনা নিয়েছেন ফ্রি বালোচিস্তান মুভমেন্টের সদস্যরা৷ আন্তর্জাতিক মহলে পাকিস্তানের আসল রূপটা সামনে নিয়ে আসাই তাঁদের একমাত্র লক্ষ্য বলে জানাচ্ছেন বিক্ষোভকারীরা৷

[ভারতকে পাশে পেতে সয়াবিন থেকে শুল্ক মকুব চিনের]

২০১৫-তে স্বাক্ষর হওয়া মৌ-য়ের ভিত্তিতে চীন-পাকিস্তানের মধ্যে অর্থনৈতিক করিডর বা সিপিইসি নির্মাণকার্য শুরু হয়েছে৷ চিনের প্রস্তাবিত ওয়ান বেল্ট,ওয়ান রোড নীতির উপর ভিত্তি করে, তাদের অর্থ সাহায্যেই এই করিডর তৈরি হচ্ছে৷ পাকিস্তানের গদর পোর্ট থেকে চিনের শিনজিং প্রদেশ পর্যন্ত মোট ২,০০০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই পথটি তৈরি করা হচ্ছে৷ এই করিডর নিয়ে প্রথম থেকেই বিক্ষোভ প্রদর্শন করে আসছেন বালোচরা৷ অভিযোগ, পেশি শক্তির জোরে তাঁদের বাসভূমি কেড়ে নিয়ে এই করিডর তৈরি করছে পাকিস্তান৷ যাতে পূর্ণ মদত দিচ্ছে চিন৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে