৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সন্ত্রাসবাদীদের অর্থসাহায্য বন্ধ করা নিয়ে সন্ত্রাসবাদ বিরোধী আন্তর্জাতিক সংগঠন ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্সের (এফএটিএফ) কড়া হুঁশিয়ারির মুখে পড়তে চলেছে ইসলামাবাদ। পাকিস্তানের কাছে এটাই শুধরে নেওয়ার শেষ সুযোগ। নাহলে ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিকভাবে জারি হবে অর্থনৈতিক অবরোধ। ইমরান খানকে যে সময় দেওয়া হয়েছিল, তার মধ্যে জঙ্গিদের অর্থসাহায্য বন্ধের ব্যাপারে তারা কোনও সুনির্দিষ্ট তথ্যপ্রমাণ দাখিল করতে পারেননি। ফলে এফএটিএফ এবার পাকিস্তানকে ‘আরও বেশি ধূসর’ দেশগুলির তালিকাভুক্ত করতে পারে। এফএটিএফ-এর তরফে জানানো হয়েছে, আগামী ১৮ অক্টোবরই বিষয়টি ঘোষিত হতে পারে।

[আরও পড়ুন: বাঙালির বিশ্বজয়, অমর্ত্য সেনের পর ফের অর্থনীতিতে নোবেল অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের]

এফএটিএফের এমন হুঁশিয়ারিতে প্রচণ্ড চাপে পাকিস্তান। সোমবার একটি সরকারি অনুষ্ঠানে ভাষণ দিতে গিয়ে এই দাবিই করলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। এদিন সন্ত্রাস দমন স্কোয়াড (এটিএস) ও স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের (এসটিএফ) শীর্ষ অফিসারদের এক সম্মেলনে ডোভাল বলেন, “প্যারিসে FATF-এর বার্ষিক মহাসম্মেলন চলছে, তাতে নজিরবিহীনভাবে চাপের মুখে পড়েছে পাকিস্তান। তাদের উপর এতটাই চাপ সৃষ্টি হয়েছে যে আগে কখনও তা হয়নি। পাকিস্তানের কাছে অকাট্য যুক্তি তুলে ধরেছে নীতি নির্ধারক দেশগুলি। এরপর পাকিস্তানের আর কিছুই বলার থাকছে না। ওদের কোনও যুক্তিই নেই।”

তিনি আরও বলেন, “যদি পাকিস্তান কোনও অপরাধী রাষ্ট্রের সাহায্য পায়, তাহলে সেটা বড় চ্যালেঞ্জ। কয়েকটি রাষ্ট্র এই কাজে মাস্টার বা বিশেষজ্ঞ হিসেবে কাজ করছে। যেমন আমাদের প্রতিবেশী সন্ত্রাসবাদীদের আশ্রয় দিয়ে ও সন্ত্রাসবাদকে হাতিয়ার করে নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রেখেছে।” পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরানের যুদ্ধ হুমকি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “যুদ্ধে যে পরিমাণ অর্থ ও মানুষের ক্ষতি হয়, তাতে কেউই এখন যুদ্ধ চায় না। আর যুদ্ধে কে জিতবে, সেটাও নিশ্চিত নয়। ফলে যুদ্ধে কি হবে, কী করে দেখাব সে ব্যাপারে আগাম হুমকি দেওয়া মূর্খামি।”

[আরও পড়ুন: মাদার টেরিজার পর সিস্টার মরিয়ম, ভ্যাটিকানে ‘সন্ত’ উপাধি আরেক ভারতীয় সন্ন্যাসিনীকে]

সন্ত্রাসে মদত দেওয়ার অভিযোগে পাকিস্তান এখন FATF-এর ধূসর তালিকায় রয়েছে। ‘আরও বেশি ধূসর’ তালিকাভুক্ত হলেই পাকিস্তানের রুগ্ন অর্থ ব্যবস্থা ধসে পড়বে। আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে অর্থ সাহায্য পাওয়াও কঠিন হয়ে উঠবে। ফলে ঋণের বোঝায় আরও জর্জরিত হবে পাকিস্তান। FATF-এর রোষ ও শাস্তি থেকে বাঁচার জন্য চিন, তুরস্ক, মালয়েশিয়া- এই তিন দেশের শরণাপন্ন হয়েছে। এই তিন দেশ ছাড়া বিশ্বের আর কোনও দেশ পাকিস্তানের পাশে নেই বলে জানান ডোভাল।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং