ad
ad

Breaking News

Vladimir Putin India

‘ভারতের মতো উপনিবেশ গড়তে চেয়েছিল রাশিয়াতেও’, পশ্চিমি দুনিয়াকে তোপ পুতিনের

ইউক্রেনের অঞ্চল রাশিয়ার অন্তর্ভুক্ত করে এহেন বার্তা পুতিনের।

Tried to colonize Russia as India, says Vladimir Putin | Sangbad Pratidin
Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:October 2, 2022 4:21 pm
  • Updated:October 2, 2022 4:21 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইউক্রেনের (Ukraine) চারটি অঞ্চল নিজেদের দখলে এনেছে রাশিয়া। বক্তৃতা দিয়ে সেই কথা ঘোষণা করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন (Vladimir Putin)। তবে সকলকে চমকে দিয়ে তাঁর বক্তৃতায় উঠে এসেছে ভারতের নাম। পুতিনের মতে, পশ্চিমি দেশগুলি ভারতে গিয়ে যথেচ্ছ লুটপাট করেছে। কিন্তু রুশ জনতা নিজেদের দেশের অবস্থা ভারতের মতো হতে দেননি।

পশ্চিমি দেশগুলির মূল লক্ষ্য রাশিয়াকে (Russia) নিজেদের উপনিবেশে পরিণত করা, বক্তৃতায় এমনটাই বলেছেন পুতিন। তিনি বলেছেন, “মধ্য যুগ থেকেই উপনিবেশ গঠনের চেষ্টা শুরু করেছে পশ্চিমি দেশগুলি। একে একে দাস ব্যবসা, আমেরিকায় রেড ইন্ডিয়ানদের নির্বিচারে হত্যা করা হয়েছে। তারপরে ভারত ও আফ্রিকায় বেলাগাম লুটপাট, চিনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ-সমস্ত কিছুই করেছে পশ্চিমি দেশগুলি। ” পুতিনের মতে, চিনের বাসিন্দাদের আফিমের প্রতি আসক্ত করে গোটা জাতিকে বিনষ্ট করে দিতে চেয়েছিল ব্রিটেন।

[আরও পড়ুন: ইন্দোনেশিয়ায় ফুটবল ম্যাচের পরে সমর্থকদের মধ্যে হাতাহাতি, পদপিষ্ট হয়ে মৃত ১২৯]

পুতিন আরও বলেছেন,”বিংশ শতাব্দীর প্রথম থেকেই ঔপনিবেশিকতার বিরুদ্ধে লড়াই করার সাহস জুগিয়েছে রাশিয়া। সেখান থেকেই অনুপ্রাণিত হয়ে স্বাধীনতা সংগ্রামে যোগ দিয়েছে বহু দেশ।” প্রসঙ্গত, ১৯১৭ সালের বলশেভিক বিপ্লবের পরে রাশিয়ার মূল উদ্দেশ্যের মধ্যে একটি ছিল, নানা দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামকে উৎসাহিত করা। সেই প্রসঙ্গ টেনে এনেই পশ্চিমি দুনিয়াকে বিঁধেছেন পুতিন।

তবে প্রথম থেকেই ইউক্রেনের অঞ্চলগুলি দখল করার প্রক্রিয়াকে বেআইনি বলে অভিহিত করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। পালটা দিয়ে পুতিন বলেছেন, ইচ্ছাকৃত ভাবে গ্যাস সরবরাহের পাইপলাইনে ফাটল ধরিয়েছে ইউরোপ। তবে এই দাবিকে নস্যাৎ করে দিয়েছে মার্কিন সরকার। 

এহেন পরিস্থিতিতে কার্যত রাশিয়ার পাশেই দাঁড়িয়েছে ভারত। শুক্রবার রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে একটি প্রস্তাব পেশ করে আমেরিকা ও আলবানিয়া। ওই প্রস্তাবে ইউক্রেনের অধিকৃত অঞ্চলে ‘অবৈধ গণভোটের’ নিন্দা করা হয়। নিয়মমাফিক প্রস্তাবের পক্ষে বা বিপক্ষে ভোটপর্ব শুরু হয় রাষ্ট্রসংঘের ১৫ সদস্য দেশের (৫ স্থায়ী সদস্য) মধ্যে। এবং মার্কিন চাপ উড়িয়ে ভোটদানে বিরত থাকে ভারত।

[আরও পড়ুন: ফের নিশানায় কেজরি, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে লক্ষ্য করে জলের বোতল ছোঁড়া হল গুজরাটে]

 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ