BREAKING NEWS

১৭ ফাল্গুন  ১৪২৭  বুধবার ৩ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনায় আক্রান্ত হয়ে পাকিস্তানে মৃত্যু ২টি সাদা বাঘের বাচ্চার, প্রশ্নের মুখে কর্তৃপক্ষ

Published by: Paromita Kamila |    Posted: February 13, 2021 9:13 pm|    Updated: February 14, 2021 2:36 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনায় (Covid-19) আক্রান্ত হয়ে মাত্র আড়াই মাস বয়সেই প্রাণ হারিয়েছে দুটি সাদা বাঘের (White Tiger) বাচ্চা। ঘটনাটি পাকিস্তানের (Pakistan) লাহোর চিড়িয়াখানার। এই খবর সামনে আসতেই সরব হয়েছেন পশুপ্রমেীরা।

জানা গিয়েছে, খাঁচার মধ্যে হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে পড়ে সাদা বাঘ দু’টি। প্যানলেউকোপেনিয়া ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বাচ্চা বাঘ দু’টি। এই ভেবে পশু চিকিৎসক তাদের চিকিৎসা শুরু করেন। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই তারা মারা যায়। এরপরেই তাদের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। সেখানে উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা যায়, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিল বাঘ দু’টি। তাদের ফুসফুস একেবারে নষ্ট হয়ে গিয়েছিল।

[আরও পড়ুন: ইউহানে করোনা সংক্রান্ত তথ্য দেয়নি চিন, দাবি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তদন্তকারীর]

ঘটনার পর প্রশ্নের মুখে পড়েন লাহোর চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। চিড়িয়াখানার ডেপুটি ডিরেক্টর কিরণ সলীম সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে (Reuters) জানিয়েছেন, বাঘ দু’টির মৃত্যুর পর সেখানকার সকল আধিকারিকদের করোনা পরীক্ষা করানো হয়েছিল। ছ’জন করোনা পজিটিভের সন্ধান মেলে। যার মধ্যে বাঘ দু’টির রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে যিনি ছিলেন, তিনিও আক্রান্ত। মনে করা হচ্ছে, ওই ব্যক্তি থেকেই বাঘ দু’টি করোনায় আক্রান্ত হয়।

ঘটনার পর থেকেই পাকিস্তানের চিড়িয়াখানায় পশুদের অবস্থা ও রক্ষণাবেক্ষণে অবহেলা নিয়ে সোচ্চার হন পশুপ্রেমীরা। যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। প্রসঙ্গত, গত বছর পেশোয়ারের চিড়িয়াখানায় চারটি জিরাফ ও ইসলামাবাদ চিড়িয়াখানায় দমবন্ধ হয়ে দু’টি সিংহের মৃত্যুর খবর সামনে এসেছিল। এমনকী, পশুদের অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের জন্য গত ডিসেম্বরে দু’টি ভল্লুককে ইসলামাবাদ চিড়িয়াখানা থেকে জর্ডনের অভয়ারণ্যে পাঠানো হয়। দীর্ঘদিন ধরে বন্দি একটি হাতিকেও কম্বোডিয়ার অভয়ারণ্যে পাঠানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: নাভালনির গ্রেপ্তারিতে তুঙ্গে বিবাদ, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদের হুমকি রাশিয়ার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement