১৪ মাঘ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৮ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিন দিন সমাজে বাড়ছে বিকৃত মানসিকতার মানুষের সংখ্যা। ফলে খুনের পর ধর্ষণের পাশাপাশি মহিলাদের মৃতদেহের সঙ্গে যৌনাচারের ঘটনাও অবিরত ঘটে চলেছে। সম্প্রতি তেলেঙ্গানার রাজধানী হায়দরাবাদে এক যুবতী পশু চিকিৎসককে খুনের পর ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে ধৃতদের বিরুদ্ধে। আর উত্তরপ্রদেশের আজমগড়ে তো ঘুমন্ত এক দম্পতিকে খুনের পর গৃহবধূর মৃতদেহের সঙ্গে তিন ঘণ্টা ধরে যৌনাচার চালিয়েছে অভিযুক্ত নাসিরুদ্দিন। তবে শুধু ভারতই নয়, বিকৃত কামনার মানুষের সংখ্যা বাড়ছে বিদেশেও। দিনকয়েক আগে নারকীয় একটি ঘটনা ঘটেছে আমেরিকার লস অ্যাঞ্জেলসে। সেখানকার এক পুলিশ আধিকারিক তদন্তে গিয়ে মৃত মহিলার স্তন নিয়ে যৌনাচার করে বলে অভিযোগ। তার পোশাকে লাগানো ভিডিও ক্যামেরায় ওঠা ফুটেজের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: পার্ল হারবারে মার্কিন নৌঘাঁটিতে চলল গুলি, মৃত ৩]

বুধবার এপ্রসঙ্গে লস অ্যাঞ্জেলসের পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, সম্প্রতি লস অ্যাঞ্জেলসের একটি বাড়িতে এক মহিলার মৃতদেহ পড়ে থাকার খবর আসে। এরপরই দুই পুলিশ আধিকারিককে তদন্তের জন্য সেখানে পাঠানো হয়। আর সেখানে গিয়ে তাদের মধ্যে একজন এই কুকীর্তি করে বলে অভিযোগ। এমনকী এই ঘটনার সময় নিজের পোশাকে লাগানো থাকা ভিডিও ক্যামেরাটিও সে বন্ধ করে দেয়। প্রাথমিক তদন্তের পর ওই অপরাধের স্বপক্ষে প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে তবে এখনই এ সম্পর্কে কিছু বলা সম্ভব হচ্ছে না।

স্থানীয় পুলিশের এক আধিকারিক ক্রিস রামিরেজ জানান, এই বিষয়টি সম্পর্কে অভিযোগ নথিভুক্ত করা হয়েছে। শুরু হয়েছে প্রশাসনিক তদন্তও। যেহুতু এটা একটা ব্যক্তিগত এবং বিচারাধীন বিষয়। তাই এখনই আমরা এ সম্পর্কে কিছু বলতে চাই না। প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে, দুই তদন্তকারী আধিকারিকের মধ্যে একজন অন্য ঘরে গিয়েছিলেন। সেই সুযোগ অভিযুক্ত মৃত মহিলার সঙ্গে ওই কুকীর্তি করে। বিষয়টি যাতে কেউ বুঝতে না পারে তার জন্য পোশাকে লাগানো ক্যামেরা বন্ধ করে দিয়েছিল সে। যদিও তা বন্ধ হওয়ার আগে কিছু মুহূর্তের ছবি ক্যামেরাবন্দি হয়ে যায়। আর সেটাই ধরিয়ে দিয়েছে ওই পুলিশ আধিকারিককে।

[আরও পড়ুন: LPG গ্যাস ট্যাঙ্কারে বিস্ফোরণ, সুদানে ১৮ জন ভারতীয়-সহ মৃত ২৩]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং