BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা মোকাবিলায় ভারত ও চিনের থেকে ভাল কাজ করছে আমেরিকা, দাবি ট্রাম্পের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 4, 2020 5:44 pm|    Updated: August 4, 2020 5:46 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা মোকাবিলায় গাফিলতির অভিযোগে কোণঠাসা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump)। জনতা যে তাঁর কাজে খুশি নয়, সেই কথা সাফ করে দিচ্ছে একাধিক সমীক্ষা। আমেরিকায় আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনেও যে কোভিড বড় প্রভাব ফেলবে তা বলাই বাহুল্য। এহেন পরিস্থিতিতে ট্রাম্পের দাবি, ভারত ও চিনের চাইতে এই মহামারীর মোকাবিলায় ভাল কাজ করছে আমেরিকা।

[আরও পড়ুন: তাইওয়ান দখল হবেই, আমেরিকাকে হুঁশিয়ারি চিনের সেনাকর্তার]

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এপর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ৪৭ লক্ষ। সে দেশে মারণ ভাইরাসটির হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন দেড় লক্ষেরও বেশি মানুষ। কার্যত মৃত্যুপুরী হয়ে দাঁড়িয়েছে নিউ ইয়র্ক শহর। মার্কিন প্রযুক্তির জয়রথ থামিয়ে দিয়েছে একটি আণুবীক্ষণিক জীব। কিন্তু তা সত্বেও হেলদোল নেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের। বারবার অর্থনীতি খুলে দেওয়ার পক্ষেই সওয়াল করেছেন তিনি। বিশেষজ্ঞদের মতামত উড়িয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিও খুলে দিতে চাইছেন তিনি। এই মর্মে সোমবার ট্রাম্প বলেন, “ভারত ও চিনের মতো বড় দেশগুলিও সেভাবে করোনা ঠেকাতে প্রচণ্ড সমস্যা পড়েছে। অন্যরাও রীতিমতো লড়াই করছে। তবে আমার মনে হয়, এখানে খুব ভাল কাজ হচ্ছে। এটা ভুলে গেলে চলবে না যে চিন বা ভারতের থেকে আমরা অনেক বড় দেশ।” শুধু তাই নয়, সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে ক্ষব প্রকাশ করে ট্রাম্প আরও বলেন, “সংবাদমাধ্যমে অন্য দেশগুলির পরিস্থিতির কোনও উল্লেখ নেই। তারা শুধু আমাদের কথাই বলে।”

বিশ্লেষকদের মতে, ট্রাম্প মুখে যাই বলুন না কেন, পরিস্থিতি যে খুব একটা সুবিধের নয়, তা তিনি জানেন। কিন্তু নির্বাচনের মুখে নিজের দুর্বলতা ঢাকতে চাইছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ভারত ও চিনের তুলনায় আমেরিকার জনসংখ্যা প্রায় অর্ধেকেরও কম। স্বাস্থ্য পরিকাঠামো ও সম্পদের দিক থেকেই দেশটি এগিয়ে। কিন্তু করোনায় বিশ্বে সব থেকে বেশি আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা আমেরিকায়। এপর্যন্ত প্রায় ৬ কোটি মানুষের করোনা পরীক্ষা হয়েছে আমেরিকায়। তবে গোড়ার দিকে সংক্রমণের ঘটনাকে ‘সাধারণ ফ্লু’ বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। সময়মতো লকডাউন ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রক্ষায় গুরুত্ব দেয়নি মার্কিন প্রশাসন। যার ফলে পরিস্থিতি এখন রীতিমতো হাতের বাইরে চলে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: বিতর্কিত H-1B ভিসা নির্দেশিকায় সই ট্রাম্পের, বিপাকে পড়লেন বহু ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement