Advertisement
Advertisement
Syria

আফগানিস্তান থেকে শিক্ষা! সিরিয়া থেকে ফৌজ প্রত্যাহারে না মার্কিন কংগ্রেসের

মার্কিন সেনা সরতেই আফগানিস্তানে ফিরেছে অন্ধকার যুগ।

US House votes against resolution to pull American troops out of Syria | Sangbad Pratidin
Published by: Monishankar Choudhury
  • Posted:March 10, 2023 3:26 pm
  • Updated:March 10, 2023 3:26 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মার্কিন সেনা সরতেই আফগানিস্তানে ফিরেছে অন্ধকার যুগ। তালিবানের তাণ্ডবে ত্রস্ত আফগানদের অবস্থা শোচনীয়। তাই অতীতের ‘ভুল’ থেকে শিক্ষা নিয়ে এবার সিরিয়া থেকে সেনা সরানোর প্রস্তাব খারিজ করে দিল মার্কিন কংগ্রেস।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, বুধবার মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অফ রিপ্রেজেনটেটিভসে একটি প্রস্তাব পেশ করেন ফ্লোরিডার রিপাবলিকান সদস্য ম্যাট গায়েৎজ। সেখানে, ১৮০ দিনের মধ্যে সিরিয়া থেকে ৯০০ মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের দাবি জানান তিনি। এই মর্মে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে নির্দেশ দেওয়ার কথা বলা হয়েছে ওই প্রস্তাবে। গায়েৎজেক কথায়, “সিরিয়ায় লক্ষ লক্ষ ডলার খরচ করছে আমেরিকা। আমাদের জওয়ানদের প্রাণ বিপন্ন হচ্ছে। অনেকেই প্রাণ হারিয়েছেন। সিরিয়ায় বিশ্বশক্তিগুলির মধ্যে ক্ষমতার লড়াই চলছে।”

Advertisement

কিন্তু সিরিয়ায় জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে অভিযানের জন্য মোতায়েন বাহিনী থেকে ৯০০ সেনাকে ফেরত আনার উদ্যোগ খারিজ করে দেয় কংগ্রেস। ম্যাট গায়েৎজের প্রস্তাবের পক্ষে ভোট পড়ে ১০৩টি। বিপক্ষে ৩২১টি। বিশ্লেষকদের মতে, আফগানিস্তানের ‘ভুল’ থেকে শিক্ষা নিয়ে এবার সিরিয়া থেকে সেনা সরানোর প্রস্তাব খারিজ করে দিয়েছে মার্কিন কংগ্রেস। কারণ, মার্কিন সেনা সরলেই সে দেশে ফের আইএস মাথাচাড়া দিয়ে উঠবে বলে মনে করছে কংগ্রেস।

Advertisement

[আরও পড়ুন: মাওয়ের নজির ছুঁয়ে ইতিহাস, তৃতীয়বার চিনের প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচিত জিনপিং]

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালেই সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেট (ISIS) পরাজিত হয়েছে বলে দাবি করেছিলেন আমেরিকার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। একইসঙ্গে সেদেশ থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা করেছিলেন তিনি। যদিও বাইডেন জমনাতেও সিরিয়ায় মার্কিন ফৌজ রয়েছে। সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক যৌথবাহিনীতে রয়েছে প্রায় ২ হাজার মার্কিন সেনা।

শুধু আইএস নয়, আসাদপন্থী মিলিশিয়াদের সঙ্গেও লড়াই হয়েছে মার্কিন ফৌজের। একের পর এক মার্কিন বোমারু বিমান ও ক্রুজ মিসাইল হামলায় গুঁড়িয়ে গিয়েছে অধিকাংশ জঙ্গিঘাঁটি। সিরিয়ায় আইএস-এর গড় রাকা ও ইদলিব শহরও প্রায় বিধ্বস্ত। সব মিলিয়ে এই মুহূর্তে জমি খুইয়ে বেকায়দায় সন্ত্রাসবাদী সংগঠনটি। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে শক্তিক্ষয় হলেও এখনও যথেষ্ট প্রভাবশালী আইএস।

[আরও পড়ুন: উপাসনা চলাকালীন জার্মানির গির্জায় ঢুকে তাণ্ডব বন্দুকবাজের, মৃত অন্তত ৭, আহত বহু]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ