BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

আইনি লড়াই শেষ, বিজয় মালিয়ার ভারতে প্রত্যার্পন নিশ্চিত

Published by: Paramita Paul |    Posted: May 14, 2020 6:25 pm|    Updated: May 14, 2020 6:25 pm

Vijay Mallya can't appeal in UK against extradition, out of legal options

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বন্ধ আইনের সমস্ত দরজা। ঋণথেলাপী পলাতক লিকার ব্যরন বিজয় মালিয়ার প্রত্যার্পন কার্যত নিশ্চিত হয়ে গেল। ব্রিটেন হাই কোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছিলেন মালিয়া। কিন্তু তা বাস্তবায়িত হল না। বৃহস্পতিবার আদালতের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, প্রত্যাপর্নের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারবেন না মালিয়া। ফলে তার সমস্ত আইনি পথ বন্ধ হয়ে গেল।

কিংফিশার বিমানসংস্থার নামে বিজয় মালিয়া ভারতের একাধিক ব্যাংক থেকে প্রায় নয় হাজার কোটি টাকা ধার ঋণ নিয়েছিলেন। সেই টাকা না মিটিয়েই দেশ ছাড়েন। এরপরই তাঁকে দেশে ফেরাতে উঠেপড়ে লেগেছে ভারত সরকার। কিন্তু একের পর এক আইনি মারপ্যাঁচে সেই ছক বানচাল করতে সচেষ্ট লিকার ব্যরনও।কখনও তাঁর দাবি, তিনি টাকা ফিরিয়ে দিতে ইচ্ছুক কিন্তু ভারত সরকার সেই টাকা নিয়ে চাইছেন নাষ আবার কখনও বলেছেন, তিনি এতটাই গরিব যে সেই টাকা ফেরত দেওয়ার ক্ষমতা নেই। কিন্তু এবার আর তাঁর বাঁচার উপায় নেই বলেই মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

[আরও পড়ুন :যৌনদাসী বানানোর ছক, পাকিস্তানে ফের হিন্দু নাবালিকাকে জোর করে ধর্মান্তকরণ]

ভারতের হাতে প্রত্যার্পনের নির্দেশের বিরুদ্ধে ব্রিটেনের হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন তিনি। তাঁর সেই আবেদন পত্রপাঠ খারিজ করে দেয় আদালত। পালটা ফের এই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হতে চেয়ে আবেদন জানিয়েছিলেন মালিয়া। বৃহস্পতিবার তাঁর সেই আবেদন পত্রপাঠ খারিজ করে দেয় আদালত। জানানো হয়, হাই কোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে তখনই আবেদন করা যায়, যখন কোনও গুরুত্বপূর্ণ আইনি জটিলতা থাকে। তাও রায়দানের ১৪ দিনের মধ্যে আবেদন করা যায়। কিন্তু এক্ষেত্রে কোনও জটিলতাই নেই। ফলে মালিয়ার প্রত্যার্প কার্যত নিশ্চিত।” ফলে তাঁকে কবে দেশে ফেরানো হবে, সেই সংক্রান্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন ব্রিটেনের স্বরাষ্ট্র সচিব প্রীতি প্যাটেল। সূত্রের খবর, আদালতের নির্দেশ মেনে আগামী ২৮ দিনের মধ্যেই বিজয় মালিকে ভারতে ফেরত পাঠানো হবে।

[আরও পড়ুন : সহমরণ! স্ত্রীর মৃত্যু হওয়ায় চিকিৎসা নিলেন না বৃদ্ধ, প্রাণ গেল তাঁরও]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে