BREAKING NEWS

৮ আষাঢ়  ১৪২৮  বুধবার ২৩ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বাতাসের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে করোনা! অবস্থান বদলে ইঙ্গিত দিল WHO

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 8, 2020 8:50 am|    Updated: July 8, 2020 8:58 am

WHO acknowledges ‘evidence emerging’ of airborne spread of Corona

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাতাসের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে করোনা। সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। করোনা সংক্রমণের পদ্ধতি নিয়ে আগের অবস্থান থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। WHO’র তরফে জানানো হল, বিশেষ কিছু পরিস্থিতিতে, যেমন বদ্ধ ঘরে বা জনবহুল জায়গায় বাতাসের মাধ্যমেও এই মারণ ভাইরাস সংক্রমণের প্রমাণ মিলেছে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বিশ্বের ৩২টি দেশের ২৩৯ জন গবেষক বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে চিঠি লিখে জানিয়েছেন, বাতাসে স্বচ্ছন্দে উড়ে বেড়ায় করোনা ভাইরাস (CoronaVirus)। করোনা ০.৫ মাইক্রনের কম আয়তনের ভাইরাস হওয়ায় বাতাসে ছয় ফুট পর্যন্ত উড়ে যেতে পারে। ওই গবেষকদলের বক্তব্য, স্কুল, রেস্টুরেন্ট, ক্যাসিনো বা মার্কেটের মতো জায়গা, যেখানে বাইরের হাওয়া সহজে ঢুকতে পারে না, সেইসব বদ্ধ জায়গা খুব সহজেই নোভেল করোনা ভাইরাস সংক্রমিত করতে পারে। মূলত আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাশি থেকে ভাইরাস (COVID-19) সুস্থ ব্যক্তির শরীরে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

[আরও পড়ুন: ‘আজীবন সুরক্ষা নাও মিলতে পারে’, করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে সতর্ক করলেন ফাউচি]

এতদিন পর্যন্ত WHO সরকারিভাবে দাবি করছিল, করোনা বাতাসে ছড়ায় না। কিন্তু ওই গবেষকদের চিঠি পাওয়ার পরই অবস্থান বদলের ইঙ্গিত দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সংস্থার তরফে এক সংক্রমণ বিশেষজ্ঞ জানিয়েছেন,”বিশেষ কিছু পরিস্থিতিতে যেমন বন্ধ ঘর, জনবহুল এলাকা, বা বাতাস ঢুকতে পারে না এমন জায়গায় বায়ুবাহিত সংক্রমণের প্রমাণ মিলেছে। সুতরাং বায়ুবাহিত সংক্রমণের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যায় না। তবে, এর স্বপক্ষে আরও প্রমাণ প্রয়োজন।” বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইমার্জিং ডিজিজ বিভাগের প্রধান মারিয়া ভন কেরকোভও (Maria Van Kerkhove) ইঙ্গিত দিয়েছেন, বায়ুবাহিত সংক্রমণ নিয়ে আলোচনা করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। 

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত হলে মিলবে পুরস্কার! মার্কিন মুলুকে এ কেমন পার্টি?]

উল্লেখ্য, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন বলছে, করোনা সংক্রমণ এড়াতে যে কোনও ব্যক্তির থেকে ১ মিটার দূরত্ব বজায় রাখা বাধ্যতামূলক। কিন্তু এরপর যদি প্রমাণিত হয় করোনা বাতাসের মাধ্যমেও ছড়ায়, তাহলে সেই স্বাস্থ্য বিধি বদলে ফেলতে পারে WHO। ১ মিটারের থেকে অনেকটা বাড়ানো হতে পারে ন্যুনতম দুরত্বের বিধি। সেক্ষেত্রে অফিস-আদালত, কলকারখানা-সহ প্রায় সমস্ত অর্থনৈতিক কার্যকলাপই লাটে ওঠার সম্ভাবনা থাকছে। কারণ, এইসব জনবহুল এলাকায় এক মিটারের বেশি দূরত্ব বজায় রাখা একপ্রকার অসম্ভব। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement