BREAKING NEWS

৭ আষাঢ়  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২২ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মেহুল চোকসির প্রত্যর্পণ হচ্ছে না এখনই, খালি হাতে দেশে ফিরছে সিবিআই দল

Published by: Biswadip Dey |    Posted: June 4, 2021 11:49 am|    Updated: June 4, 2021 11:57 am

Without Mehul Choksi Indian team leaves Dominica | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কুখ্যাত হীরে ব্যবসায়ী মেহুল চোকসিকে (Mehul Choksi) দেশে ফেরাতে যে দল পাঠানো হয়েছিল, অবশেষে সেই দল ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জ থেকে খালি হাতেই দেশে ফিরে আসছে। ৮ সদস্যের ওই দলে দু’জন সিবিআই অফিসার রয়েছেন। গত ২৮ মে তাঁরা ডোমিনিকায় এসেছিলেন। উদ্দেশ্য ছিল, চোকসিকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চোকসিকে ছাড়াই ফিরে যেতে হল তাঁদের।

এমনটা যে হতে চলেছে তা গতকাল, বৃহস্পতিবারই স্পষ্ট হয়ে যায় যখন মেহুল গ্রেফতারি মামলার শুনানি ১ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত রাখে ডোমিনিকার (Dominica) হাই কোর্ট।। তখনই বোঝা গিয়েছিল‌, পিএনবি কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত ভারতীয় ব্যবসায়ী মেহুল চোকসিকে হাতে পেতে ১ জুলাই পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে ভারতকে। বুধবার এই মামলার শুনানিতে ডোমিনিকা সরকার আদালতকে জানিয়েছিল, অবিলম্বে অভিযুক্ত ভারতীয় ব্যবসায়ীকে দিল্লির হাতে তুলে দেওয়া হোক। এমনকী, এই ব্যাপারে মেহুল যে আবেদন করেছেন তা না শোনারও দাবি করা হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: মালয়েশিয়ার আকাশে ঢুকে পড়ল ১৬টি চিনা যুদ্ধবিমান, কড়া প্রতিবাদ কুয়ালালামপুরের]

হাই কোর্ট অবশ্য সরকারের এই দাবি খারিজ করে দিয়েছে। বরং মেহুল চোকসির আইনজীবীর আবেদন গ্রহণ করে শুনানি ১ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আদালত জানিয়েছে, এই সময়ের মধ্যে দু’পক্ষই ঠিক করুক কী ভাবে সওয়াল-জবাব এগোবে। 
গত মাসের শেষে ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জ ডোমিনিকায় মেহুল চোকসি গ্রেফতারের পর, তাঁর জামিনের জন্য বুধবার নিম্ন আদালতে আবেদন করা হয়েছিল। জামিনের সেই আবেদন অবশ্য খারিজ হয়ে যায়। তাকে চ্যালেঞ্জ করেই হাই কোর্টে যায় মেহুল চোকসির আইনজীবীর দল।

সূত্রের খবর, মেহুলের নাগরিকত্বকে হাতিয়ার করে আবেদনে দাবি করা হয়, কোনও ভাবেই চোকসিকে যেন ভারতের হাতে তুলে না দেওয়া হয়। কারণ, তিনি ভারতীয় নাগরিক নন। এই পরিস্থিতিতে পিএনবি কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত ভারতীয় ব্যবসায়ীকে দিল্লি হাতে তুলে দেওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছে অ্যান্টিগা সরকার। বৃহস্পতিবার ক্যাবিনেট বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেন অ্যান্টিগার প্রধানমন্ত্রী গ্যাসটন ব্রাউন। তিনি জানিয়ে দেন, মেহুলকে ফেরত পেতে তাঁরা কোনও ভাবেই আগ্রহী নন। বরং সময় নষ্ট না করে চোকসিকে দিল্লির হাতে তুলে দেওয়া হোক।

ডোমিনিকা হাই কোর্টের সিদ্ধান্তের জেরে কার্যত ধাক্কা খেয়ে যায় চোকসি প্রত্যর্পণে দিল্লির তৎপরতা। প্রশ্ন ওঠে, এই অবস্থায় কী করবে সিবিআই দল? ডোমিনিকায় থেকে একেবারে মেহুলকে দিল্লি ফেরাবে? নাকি আপাতত দেশে ফিরে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী সম্পর্কে আরও ‘হোমওয়ার্ক’ করে তবে ডোমিনিকায় ফেরত আনতে যাবেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা? অবশেষে দ্বিতীয় সম্ভাবনাকে বেছে নিয়েই দেশে ফিরল দলটি।

[আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রী মোদিকে ফোন কমলা হ্যারিসের, টিকা বণ্টন নিয়ে আলোচনা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement