BREAKING NEWS

৩১ চৈত্র  ১৪২৭  বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

দেশ থেকে ঘুচে গেল চরম দারিদ্র! চিনা প্রেসিডেন্টের চমকপ্রদ দাবি ঘিরে শোরগোল

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 25, 2021 3:21 pm|    Updated: February 25, 2021 3:22 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মির‌্যাকল! সত্যিই চমকপ্রদ দাবি করল চিন (China)। দেশ থেকে নাকি চরম দারিদ্র (extreme poverty) উধাও!চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের দাবি, পৃথিবীতে এমন অসাধ্য সাধন করতে সক্ষম হয়েছে কেবল তাঁদের দেশই। যদিও কীসের ভিত্তিতে চিনা কমিউনিস্ট পার্টির এই দাবি, সে বিষয়ে একেবারে অন্ধকারে সকলে। এই মুহূর্তে দেশের চরম দারিদ্র নেই। প্রত্যেকের ন্যূনতম আয় দিন প্রতি প্রায় আড়াই ডলারের কাছাকাছি নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে দাবি। তবে এর স্বপক্ষে কোনও প্রমাণ দিতে চায়নি চিন।

বিশ্বব্যাংক আগে একবার চিনের এই দারিদ্র দূরীকরণের ভূমিকার প্রশংসা করেছিল। সে অবশ্য বহু আগে। সত্তর দশকের পরবর্তী সময়ে প্রায় ৮ কোটি মানুষকে অতি দারিদ্রের কবল থেকে মুক্ত করেছিল চিন। বছর খানেক আগে ফের চিনা অর্থনীতি মুখ থুবড়ে পড়ায় ফের দারিদ্রের অন্ধকারে ঢুকে পড়ে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে। তা নিয়ে তৎপর হওয়ার পর খুব অল্প সময়ের মধ্যেই চিন বড়সড় সাফল্য পেল বলে দাবি দেশের শাসকদলের। প্রেসিডেন্ট জিনপিংয়ের দাবি, পৃথিবীর আর কোনও দেশ নেই যারা এত কম সময়ের মধ্যে দারিদ্র দূর করেছে। সম্প্রতি অতি দারিদ্রের মাপকাঠি হিসেবে বিশ্বব্যাংক ঠিক করে দিয়েছে, দিনে আয় ন্যূনতম ১.৯০ ডলারের কম হতে হবে বলে স্থির করেছিল। তার চেয়ে বেশি আয় হলেই সেই শ্রেণিকে আর অতি দরিদ্র বলা যাবে না।

[আরও পড়ুন: রাষ্ট্রসংঘে ড্যানিয়েল পার্ল হত্যা প্রসঙ্গে পাকিস্তানকে তুলোধোনা ভারতের]

বৃহস্পতিবার চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং জানান যে তাঁদের দেশ নজিরবিহীন সাফল্যের সঙ্গে দারিদ্র দূর করেছে। এটা একটা চমকপ্রদ ঘটনা এবং তা দেশবাসীর দ্বারাই সম্ভব হয়েছে। গ্রামাঞ্চলে কাজ করা কর্মীদেরও তিনি কৃতিত্ব দিয়েছেন। বেজিংয়ে এক অনুষ্ঠানে তাঁদের হাতে মেডেলও তুলে দেওয়া হয়। জিনপিং জানান যে এই মুহূর্তে চিনে একটা শ্রেণির দৈনিক আয় ২.৩০ ডলার, যা বিশ্বব্যাংকের তৈরি মাপকাঠির চেয়ে বেশি। ফলে চিনে আর দারিদ্র নেই বলে দাবি চিনা কমিউনিস্ট পার্টির প্রধানের।তবে জিনপিংয়ের এই দাবি ঘিরে ইতিমধ্যেই নানা সমালোচনা শুরু হয়েছে। চিন কীসের ভিত্তিতে এই দাবি তুলছে, তার প্রমাণ চান অনেকেই। কারও কারও কটাক্ষ, ফের আসল তথ্য গোপন করতেই এসব কথা বলছে চিন।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীর নিয়ে আলোচনার প্রস্তাব ইমরানের, এতদিনের ব্যর্থতার দায় চাপালেন ভারতেরই উপর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement