BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

৯-তেই লুকিয়ে শক্তি? মোদির ৯টায় ৯মিনিট মোমবাতি জ্বালানোর ব্যাখ্যা দিলেন জ্যোতিষীরা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 5, 2020 10:55 am|    Updated: April 5, 2020 10:57 am

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৫ এপ্রিল অর্থাৎ আজ ঠিক রাত ন’টায় ন’মিনিটের জন্য বাড়ির সমস্ত আলো নিভিয়ে মোমবাতি, প্রদীপ, টর্চ কিংবা মোবাইলের ফ্ল্যাশ জ্বালতে দেশবাসীকে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গত শুক্রবার সকাল ন’টায় জাতির উদ্দেশে তাঁর দেওয়া ন’মিনিটের সেই ভাষণের পর থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছে নানা চর্চা। দেশের এমন পরিস্থিতিতে মোদির এই ‘দিশাহীন মন্তব্য’ নিয়ে সমালোচনায় সরব হয় বিরোধীরা। কিন্তু প্রশ্ন হল, কেন মোদি দেশবাসীকে এই অনুরোধ জানালেন? এর পিছনে কোন যুক্তি কাজ করছে?

সংখ্যাতত্ত্ববিদ এবং জ্যোতিষীদের মতে, অনেক ভেবেচিন্তেই ঠিক সকাল ন’টায় ভিডিও বার্তা দিয়েছেন মোদি। জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, ৯ হল মঙ্গলের সংখ্যা। যা অত্যন্ত শক্তিশালী। রাত ৯টায় ৯মিনিট মানে মঙ্গলের দ্বিগুণ প্রভাব। মঙ্গল শক্তিশালী হলে ইচ্ছাশক্তি বেড়ে যায়, বাড়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও। লড়াইয়ে শক্তি ও সাহস জোগায় মঙ্গল। এছাড়া, ৫ তারিখ চাঁদ থাকবে সিংহ রাশিতে। অর্থাৎ সূর্যের রাশিতে। সূর্য গোটা দুনিয়াকে আলোকিত করে। তাই এই দিনে বাড়িতে প্রদীপ বা মোমবাতি জ্বালালে শক্তিশালী হবে চাঁদও। যা মানুষের মনে তথা গোটা দেশের নাগরিকের মনে সাহস জোগাবে। সেই কারণেই জ্যোতিষীরা ওই সময় টর্চ অথবা মোবাইল না জ্বেলে প্রদীপ কিংবা মোমবাতি জ্বালানোর পরমার্শ দিচ্ছেন। এতে রাহুর শক্তি কম হয় অর্থাৎ অন্ধকার দূর হয়। তেলের প্রদীপ জ্বালালে শরীর ভাল থাকবে। ঘিয়ের প্রদীপ জ্বালালে তাতে কর্পুর দিন। মোমবাতি জ্বালালে তার উপর জোয়াড় ছিটিতে দিতে পারেন।

[আরও পড়ুন: গত বছর মহামারির ইঙ্গিত দিয়েছিল, সেই কিশোরই জানাল বিশ্ব থেকে কবে বিদায় নেবে করোনা]

সংখ্যাতত্ত্ব অনুযায়ীও, ৫ হল বুধের সংখ্যা। এটি মানুষকে সতর্ক করে। ০৫-০৪-২০২০। সংখ্যাগুলি যোগ করলে আসে ১৩। ১+৩ হল ৪। যা রাহুর সংখ্যা। আর এই রাহু অর্থাৎ ভাইরাসের বিরুদ্ধেই লড়তে হবে দেশকে। রাতের সময়টা হয় শনির। সেই সময় প্রদীপ জ্বালালে তা মঙ্গলের শক্তি বৃদ্ধি করে। আর ৯ অত্যন্ত শক্তিশালী সংখ্যা। কারণ ৯ একটি বৃত্তকে (১ থেকে ৯) সম্পূর্ণ করে। অর্থাৎ যে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে তা শেষ করার ভার বহন করে ৯।

মোদির ঘোষণার পরই টুইটারে সরব হয়েছিলেন কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর। প্রধানমন্ত্রীকে একহাত নিয়ে বলেন, আবার সংখ্যার খেলায় গিয়েছেন মোদি। রামের ভরসাতেই ভাইরাস তাড়াতে চাইছেন। কিন্তু এখন অনেক গম্ভীরভাবে ভাবতে হবে। তবে আজ ‘কুসংস্কার’ বলে মোদির আবেদন অগ্রাহ্য করা হয়, নাকি দেশ ‘মহাশক্তি’র জাগরণ ঘটায়, সেটাই এখন দেখার।

[আরও পড়ুন: ‘আমার বাড়িতে লাইট বন্ধ থাকবে না’, মোদির ‘মোমবাতি’ নিদানকে বয়কট অপর্ণার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement