BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাংলাদেশে করোনার মৃত্যুমিছিল, চব্বিশ ঘণ্টায় সাংবাদিক-সহ মৃত ১৪

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: May 8, 2020 9:13 am|    Updated: May 8, 2020 9:13 am

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে কিছুতেই থামছে না করোনার মৃত্যুমিছিল। গত চব্বিশ ঘণ্টায় এই মারণ রোগে আক্রান্ত হয়ে এক সাংবাদিক-সহ প্রাণ দিয়েছেন ১৪ জন। এনিয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২১২। আক্রান্ত অন্তত ১২ হাজার।

[আরও পড়ুন: হায় স্ত্রী! করোনাক্রান্ত স্বামীকে ঘরে ঢুকতে বাধা, উপসর্গ নিয়ে বোনের বাড়িতেই মৃত্যু]

জানা গিয়েছে, করোনা ভাইরাস সংক্রমণের উপসর্গ নিয়ে বৃহস্পতবিার রাতে দৈনিক ‘ভোরের কাগজ’ পত্রিকার সংবাদকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। এদিনই দেশে আরও ১৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। মৃত আসলাম রহমান (৪২) ভোরের কাগজ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার ও বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোটার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) প্রাক্তন ক্রীড়া সম্পাদক ছিলেন। আসলাম রহমান স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে রাজধানীর শান্তিবাগে থাকতেন। এক সপ্তাহ আগে আসলামের জ্বর, সর্দি ও কাশি দেখা দেয়। গত সোমবার তিনি মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা করান। গত বুধবার রাতে তার পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসে। কিন্তু বুধবার রাতে শ্বাসকষ্ট বেড়ে যায়। বৃহস্পতিবার রাতে শান্তিবাগের বাড়িতে অচেতন হয়ে পড়লে তাকে প্রথমে ইসলামি ব্যাংক হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে তাকে রাত পৌনে ১১ টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এর আগে সময়ের আলো পত্রিকার দুই সাংবাদিক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এ নিয়ে তিন সাংবাদিক করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন।

এদিকে, বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণে এক দিনে সর্বোচ্চ সংখ্যক ১৫ জনের মৃত্যুর তথ্য জানানো হয়েছিল গত ১৭ এপ্রিল। এরপর প্রতিদিন ১ থেকে ১০ জনের মধ্যেই ছিল মৃতের সংখ্যা। তবে বৃহস্পতিবার মৃতের সংখ্যা আবার উঠে যায় ১৩ জনে, যা এক দিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যুর ঘটনা। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বৃহস্পতিবার বুলেটিনে জানানো হয়- এদিন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭০৬ জন। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্তকৃত সংখ্যা ছিল ৭৯০ জন। আর মৃত্যু ছিল তিনজনের। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত দেশে মোট এক লক্ষ পাঁচ হাজার ৫১৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২ হাজার ৪২৫ জনের রিপোর্ট পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ১ হাজার ৯১০ জন। এদিকে আইইডিসিআরের তথ্য অনুসারে দেশে যে ২১২ জনের মৃত্যু ঘটেছে তার মধ্যে ১০০ জনের বেশি মারা গিয়েছে ঢাকায়। এর পরই নারায়ণগঞ্জে মারা যান ৪০ জনের বেশি। অন্যরা দেশের বিভিন্ন এলাকার। সব মিলিয়ে বাংলাদেশে ক্রমেই বাড়ছে করোনার হামলা।

[আরও পড়ুন: করোনা আবহেও বাংলাদেশে মসজিদ খোলার অনুমতি দিল প্রশাসন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement