BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ৪ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

এই প্রথম বাংলাদেশের জনপ্রতিনিধি তালিকায় নাম উঠল এক বৃহন্নলার

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: October 15, 2019 7:31 pm|    Updated: October 15, 2019 7:31 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বৃহন্নলারাও যে সমাজের মূলস্রোতে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারেন, তারই প্রমাণ দিলেন বাংলাদেশের সাদিয়া। যাঁর পুরো নাম সাদিয়া আখতার পিংকি। এই প্রথমবার বাংলাদেশের জনপ্রতিনিধিদের খাতায় নাম লেখালেন তৃতীয় লিঙ্গের এক প্রতিনিধি। 

[আরও পড়ুন: প্রজনন মরশুমে নিষিদ্ধ ইলিশ শিকার, মৎস্যজীবীদের দিকে রাবার বুলেট ছুঁড়ল পুলিশ ]

বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চলের ঝিনাইদহ জেলার কোটচাঁদপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন সাদিয়া আখতার পিংকি। এপ্রসঙ্গে উল্লেখ্য, পিংকিই বাংলাদেশের প্রথম বৃহন্নলা যিনি ইউনিয়ন পরিষদে ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হলেন। পিংকি আদতে কোটচাঁদপুর উপজেলার দোড়া ইউনিয়নের সোয়াদি গ্রামের নওয়াব আলির সন্তান। গতকাল অর্থাৎ সোমবার পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পিংকি-সহ আরও দুজন এই পদের জন্য লড়েছেন।

তাঁদের মধ্যে পিংকি ১২ হাজার ৮৮০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তবে তাঁর থেকে খুব কম সংখ্যকই ভোটের ব্যবধানে ছিলেন অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ছিলেন রুবিনা খাতুন। তিনি পেয়েছেন ১২ হাজার ১৩৯ ভোট। এছাড়া ওই একই পদে নাসিমা ইসলাম নামে আরও এক নারী ভোট লড়েছেন। জয়ী হয়ে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত সাদিয়া আখতার পিংকি। বাংলাদেশের প্রথম বৃহন্নলা জনপ্রতিনিধি হওয়া প্রসঙ্গে পিংকি বলেন, তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলাম। দায়িত্ব পাওয়ায় তিনি সমাজের অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়াবেন। সমাজের চোখে লিঙ্গ নিয়ে যে বৈষম্য রয়েছে, সেই বৈষম্য রোধেও কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন পিংকি। পিংকি আরও জানান যে, নির্বাচনের প্রচার শুরু হওয়ার সময় থেকেই তিনি জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী ছিলেন।

[আরও পড়ুন: হাসিনার নোবেল আটকাতেই আবরার হত্যা, আজব তত্ত্ব চট্টগ্রামের মেয়রের ]

অন্যদিকে, পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের শেষ ধাপে শেরপুর জেলায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন নারী সাংবাদিক সাবিহা জামান শাপলা। তিনি ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, শেরপুর জেলা প্রেসক্লাবের দু’বারের সফল সাধারণ সম্পাদক এবং দৈনিক আমাদের সময়-এর শেরপুর জেলা প্রতিনিধি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement