Advertisement
Advertisement
Bangladesh

স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে আত্মঘাতী স্ত্রী! বাংলাদেশের ঘটনায় তাজ্জব সকলে

স্ত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে খবর।

Bangladesh woman cuts private part of husband and kills self later

গ্রাফিক্স: অর্ঘ্য চৌধুরী।

Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:April 20, 2024 6:53 pm
  • Updated:April 20, 2024 6:53 pm

সুকুমার সরকার, ঢাকা: পারিবারিক কলহের জেরে নৃশংস ঘটনা ঘটিয়ে ফেললেন স্ত্রী। বাংলাদেশের (Bangladesh) সাতক্ষীরায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে আত্মঘাতী হলেন তিনি! শনিবার ভোরে এই ঘটনা ঘটেছে। প্রতিবেশীরা তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখান থেকে অন্যত্র স্থানান্তরিত করা হলে মৃত ঘোষণা করা হয়। এই ঘটনায় পরিবারের শোকের ছায়া। কী কারণে স্ত্রী এমন ঘটনা ঘটালেন, সে ব্যাপারে বিশেষ ধারণা করতে পারছেন না তাঁরা কেউ।

জানা গিয়েছে, সাতক্ষীরার বাসিন্দা আজহারুল ইসলামের দুই স্ত্রী। প্রথম স্ত্রীকে নিয়ে সম্প্রতি দ্বিতীয় স্ত্রী ঝর্ণা খাতুনের সঙ্গে আজহারুলের বিবাদ চলছিল। সম্প্রতি সেই বিবাদ তুঙ্গে ওঠে। এর পরই চরম সিদ্ধান্ত নেন ঝর্ণা। অভিযোগ, শনিবার রাতে আজহারুল ইসলামকে ভাতের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ (Sedative)খাইয়ে দেন তিনি। তার পর ঘুমন্ত স্বামী আজহারুল ইসলামকে হাত-পা বেঁধে পুরুষাঙ্গ (Private Part) কেটে দেন।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ভুয়ো তালিকা, ১০০ দিনের মজুরি থেকে কাটমানি! লোকসভার আগে বোলপুরের গ্রামে দুর্নীতির গন্ধ

স্বামীকে ওভাবে দেখে ঝর্ণা নিজেও ঘুমের ওষুধ খেয়ে অজ্ঞান (Senseless) হয়ে পড়েন। ভোররাতে ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয়রা তাঁদের উদ্ধার করে কলারোয়া উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করেন। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে সাতক্ষীরা (Satkhira) মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের রেজিস্ট্রার ডা. মানস কুমার জানান, হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগেই ঝর্ণা খাতুনের মৃত্যু হয়েছে। আর আজহারুল ইসলামের অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ঢাকা (Dhaka) মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘সেক্স’ নয়, সাক্ষাৎকারে ‘এগস’ বলেছিলেন মহুয়া! উঠল শব্দ বিকৃতির অভিযোগ]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ