৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: দ্বিতীয় মোদি সরকার তৈরির পর সীমান্ত সুরক্ষায় জোর দিতে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সঙ্গে দীর্ঘ চারদিনের ডিজি পর্যায়ের সম্মেলন করল বিএসএফ৷ আজ, শনিবার সকালে ঢাকায় দু’দেশের সেনাকর্তারা সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ, সীমান্তে মানবপাচার, অবৈধভাবে সীমান্ত পারাপার, মাদক চোরাচালান-সহ একাধিক বিষয়ে রোধে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে ভারত-বাংলাদেশের৷ এবিষয়ে দু’দেশই সক্রিয় হয়ে কাজ করতে সহমত পোষণ করেছে৷

[আরও পড়ুন: অসুস্থ অর্থমন্ত্রী, অসমাপ্ত বাজেট পড়লেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা]

সীমান্ত সম্মেলনে বিজিবি’র ডিজি মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলামের নেতৃত্বে ১৯ সদস্যের প্রতিনিধি দল অংশ নেয়। সীমান্তে হত্যার ঘটনা ‘অনাকাঙ্ক্ষিত’ বলে উল্লেখ করেন বিএসএফ-এর ডিজি শ্রী রজনীকান্ত মিশ্র। তাঁর কথায়, ‘হত্যার ঘটনা কেন বেড়ে গেছে, তা আমরা খতিয়ে দেখছি। গত বছর সীমান্তে একজন বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। উলটোদিকে বাংলাদেশি চোরাচালানকারীদের হামলায় ৬ জন ভারতীয় নাগরিক ও ১ জন বিএসএফ জওয়ান নিহত হয়েছেন। বিএসএফ সদস্যদের ওপর ধারালো ছুরি, পাথর ছোঁড়া-সহ অনেক ভয়াবহ হামলা চালানো হয়। তখন আত্মরক্ষার্থে আমরা গুলি চালাই। তবে কাউকে টার্গেট করে চালানো হয় না।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিএসএফ-এর ডিজি আরও বলেন, ‘২০১০ সালে সীমান্তে ফেলানি নামে এক কিশোরী হত্যার ঘটনায় ৫ বিএসএফ সদস্য আদালতের বিচারাধীন রয়েছেন৷’ ভারত থেকেই কি ইয়াবা বাংলাদেশে ঢুকছে? সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের জবাবে বিএসএফ-এর ডিজি জানান, ‘ইয়াবা আসছে তৃতীয় একটি দেশ থেকে। তবে এর মধ্যে ত্রিপুরা সীমান্ত দিয়ে ৫০ হাজার ইয়াবা-সহ দুই বাংলাদেশি মহিলা প্রবেশ করেছিল। তাদেরকে আটক করা হয়েছে।’ ভারতে জেএমবি সদস্যরা বাংলাদেশে হামলা নিয়ে প্রশ্নের জবাবে শ্রী রজনীকান্ত মিশ্র জানান, সীমান্ত দিয়ে সন্ত্রাসবাদীদের অবৈধ পারাপার বন্ধ করার জন্য দু’দেশ কাজ করছে। বিজিবির ডিজি মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলাম বলেন, ‘সীমান্তে হত্যার ঘটনা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনতে দুই দেশের বাহিনীর মধ্যে কাজ করা হচ্ছে।’ মোদি সরকারের দ্বিতীয় পর্যায়ে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত সুরক্ষায় ডিজি পর্যায়ের এই বৈঠক বেশ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহল৷

[আরও পড়ুন: ঢাকায় ধৃত দুই রোহিঙ্গার পেটে মিলল ৯ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং