BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিপুল পরিমাণ ইয়াবা, আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার বাংলাদেশে, গ্রেপ্তার কুখ্যাত অস্ত্র ব্যবসায়ী

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 15, 2022 1:43 pm|    Updated: January 15, 2022 10:28 pm

Notorious arms and drugs dealer arrested in Teknaf, Bangladesh by RAB | Sangbad Pratidin

সুকুমার সরকার, ঢাকা: ফের রোহিঙ্গাদের বাসস্থানে বড়সড় অস্ত্র ও মাদকপাচার চক্রের হদিশ। বাংলাদেশের (Bangladesh)কক্সবাজার এলাকার টেকনাফে বিপুল পরিমাণে নিষিদ্ধ মাদক ইয়াবা এবং অস্ত্র উদ্ধার করল ব়্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন বা ব়্যাব (RAB)। ডেরা থেকে কুখ্যাত পাচারকারী ও অস্ত্র ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে ব়্যাব সূত্রে খবর। টেকনাফ থানায় তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগে দায়ের হয়েছে মামলা।

বাংলাদেশের ব়্যাবের তরফে জানানো হয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শুক্রবার সন্ধেবেলা টেকনাফের (Teknaf)পশ্চিম আলিখালি ঠাকুরের পাহাড় এলাকায় অভিযান চালান তদন্তকারীরা। ব়্যাবের অভিযানের খবর পেয়ে পালানোর চেষ্টা করে জাফর আলম ওরফে কালা বুলু নামে কুখ্যাত অস্ত্র কারবারি। কিন্তু ব়্যাব সদস্যদের সক্রিয়তা ধরে পড়ে যায় সে। তার কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে প্রচুর পরিমাণ ইয়াবা (Yaba) ট্যাবলেট ও অস্ত্রশস্ত্র। সেসব সামগ্রী-সহ তাকে গ্রেপ্তার করে টেকনাফ থানায় নিয়ে আসা হয়।

[আরও পড়ুন: Omicron: ওমিক্রন রোধে আরও কড়া বিধিনিষেধের পথে বাংলাদেশ, বন্ধ সভা-সমাবেশ]

জানা গিয়েছে, জাফর আলমের কাছ থেকে তিনটি দেশি ওয়ান শটার বন্দুক, চারটি তাজা কার্তুজ এবং ১৮ হাজার ইয়াবা পাওয়া গিয়েছে। বছর তিরিশের যুবক জাফর আলম ওরফে কালা বুলু এলাকার এক ডাকাত গোষ্ঠীর সক্রিয় সদস্য। অনেকদিন ধরেই সে নিষিদ্ধ মাদক (Drug) ও অস্ত্রের (Arms) ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। টেকনাফ উপজেলার পশ্চিম আলিখালির ঠাকুর পাহাড়ে বসেই সে ব্যবসা চালাত। গোপন ডেরায় শুক্রবার ব়্যাবের অভিযানের খবর পেয়ে তড়িঘড়ি পাততাড়ি গুটিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। ব়্যাব সদস্যদের হাতে ধরা পড়ে যায়।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার! আগুনে পুড়ে যাওয়া শিবিরের ছবি ভাইরাল করছে রোহিঙ্গারাই]

র‍্যাব-১৫-এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহম্মদ আবু সালাম চৌধুরী জানিয়েছেন, জাফর আলমকে টেকনাফ থানার পুলিশ নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার জন্য আদালতে আবেদন জানিয়েছে। অস্ত্র, মাদক আইন-সহ একাধিক অভিযোগে মামলা হয়েছে। প্রসঙ্গত, এই টেকনাফ উপজেলায় বহু রোহিঙ্গার বাস। অনেক সময়েই তাদের ডেরা থেকে ইয়াবা ট্যাবলেটের মতো নিষিদ্ধ মাদক উদ্ধার হয়েছে। ফলে এই এলাকায় র‍্যাবের অভিযান চলতেই থাকে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে