BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বাংলাদেশে করোনায় প্রয়াত বিজ্ঞানী ও পুলিশ কমিশনার, চিন্তায় হাসিনা প্রশাসন

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: July 13, 2020 1:20 pm|    Updated: July 13, 2020 1:20 pm

An Images

আসাদুল ইসলাম ও মিজানুর রহমান

সুকুমার সরকার, ঢাকা: করোনার তাণ্ডবে বাংলাদেশে মৃত্যুমিছিল অব্যাহত। ছাড় পাচ্ছেন না মন্ত্রী, সাংসদ থেকে শুরু দেশের বিশিষ্টজনরা। ইতিমধ্যেই ২ হাজার ৩৫১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছিলেন। এবার সেই তালিকায় নাম উঠল বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণাগার (বিসিএসআইআর) রাজশাহীর বর্ষীয়ান বিজ্ঞানী আসাদুল ইসলাম (৫৫) এবং চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) উপকমিশনার মিজানুর রহমানের।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কয়েকদিন ধরে রাজশাহী শহরের বুধপাড়া এলাকার বাসিন্দা আসাদুল ইসলামের জ্বরের সঙ্গে সর্দি-কাশি ছিল। তাই তিনি বাড়িতেই ছিলেন। গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয় ডায়েরিয়া। সেদিন বাথরুমেও পড়ে যান বর্ষীয়ান এই সাংবাদিক। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভরতি করা হয়। পরে আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকাকালীন রবিবার রাত সাড়ে ৮টার সময় তাঁর মৃত্যু হয়।

[আরও পড়ুন: দীর্ঘদিনের কাজের স্বীকৃতি, WHO’র পরামর্শদাতা হলেন ঢাকার বিজ্ঞানী সেঁজুতি সাহা ]

এপ্রসঙ্গে ওই হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস বলেন, আসাদুল ইসলাম করোনা আক্রান্ত আশঙ্কা করে আগেই তাঁর নমুনা নেওয়া হয়েছে। কিন্তু, পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়ার আগেই তিনি মারা গেলেন।

আসাদুল ইসলামের পাশাপাশি সোমবার সকালে করোনার বলি হয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) উপকমিশনার মিজানুর রহমান। সোমবার ভোরে ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। গত ২৮ জুন সংক্রমণ ধরা পড়ার পর ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া হয় মিজানুর রহমানকে। ২২তম বিসিএসের মাধ্যমে পুলিশ বাহিনীতে যোগ দেওয়া মিজানুর রহমানই প্রথম এসপি পদমর্যাদার অফিসার, যিনি করোনায় মারা গেলেন। তাঁর স্ত্রী এবং সন্তানও এই ভাইরাসে আক্রান্ত বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ভাসানচর থেকে রোহিঙ্গাদের সরাতে বাংলাদেশকে অনুরোধ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement