BREAKING NEWS

১৪  আষাঢ়  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ডুয়ার্সে বেড়াতে যাওয়াই কাল! হড়পা বানে ভেসে গেল ৪ জন, মৃত্যু দুই মহিলার

Published by: Paramita Paul |    Posted: May 29, 2022 5:47 pm|    Updated: May 29, 2022 6:10 pm

2 died in flash flood in Malbazar | Sangbad Pratidin

অরূপ বসাক, মালবাজার: প্রকৃতির রোষে আনন্দ ঘন মুহূর্তে বদলে গেল বিষাদে। কলকাতা থেকে ডুয়ার্সে বেড়াতে গিয়ে রবিবার হড়পা বানে ভেসে গেলেন ৪ জন। তাঁদের মধ্যে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। বাকি দু’ জন গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

জানা গিয়েছে, মালবাজারের (Malbazar) নাগরাকাটার বাসিন্দা রূপক বিশ্বাসের বাড়িতে কলকাতা থেকে এক আত্মীয় বেড়াতে এসেছিলেন। এদিন দুপুরে মালবাজার মহকুমার নাগরাকাটার ঘাঠিয়া নদীতে স্নান করতে নেমেছিলেন রূপকবাবুর মেয়ে-সহ আটজন। এর পরই আচমকাই হড়পা বান আসে।

[আরও পড়ুন: যেখানে সেখানে আধার কার্ডের জেরক্স জমা দেবেন না! নির্দেশিকা দিয়েও প্রত্যাহার কেন্দ্রের]

স্থানীয় বাসিন্দার দাবি, হঠাৎ বৃষ্টিতে নদীর জলস্তর বেড়ে যায়। তাতেই নিয়ন্ত্রণ রাখতে না পেরে ভেসে যান চারজন। তাঁদের মধ্যে এক মা-মেয়েও ছিলেন। কিছুক্ষণ পর চারজনের দেহ উদ্ধার হয়। তাদের মধ্যে দু’ জনের মৃত্যু হয়েছে। সুলকাপাড়া হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে জখম দু’ জনের। দেহ দু’টিও ওই হাসপাতালে রাখা রয়েছে।

কী এই হড়পা বান? হড়পা বান এক ধরনের প্রাকৃতিক বিপর্যয়, যা আচকাই ঘটে যায়। এক কথায় বলতে গেলে, স্বল্প এলাকা জুড়ে সংঘটিত দ্রুত গতির বন্যাই হল হড়পা বান। সাধারণ বন্যার সঙ্গে হড়পা বানের পার্থক্য কেবল সময়ের পরিসরে। সাধারণ বন্যা যেখানে দীর্ঘ সময় জুড়ে বিরাজ করে, সেখানে হড়পা বানের স্থায়িত্ব খুবই কম এবং দ্রুত গতিতে ঘটে থাকে। স্বল্প স্থান জুড়ে মাত্রাতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের ফলে মাত্র ৬ ঘণ্টার মধ্যেই হড়পা বান উপস্থিত হয়। এ প্রসঙ্গ বলে রাখা ভাল, পাহাড়ি এলাকায় বর্যাকালে এধরনের বিপর্যয় বেশি ঘটে থাকে। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে হড়পা বানের কবলে পড়ে উত্তরাখণ্ডে বড়সড় প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঘটে গিয়েছিল। প্রাণ হারিয়েছিলেন বহু মানুষ।

[আরও পড়ুন: এক বছরে দেশে জাল নোট বেড়ে দ্বিগুণ! রিজার্ভ ব্যাংকের তথ্য তুলে মোদিকে তোপ তৃণমূলের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে