BREAKING NEWS

২১ ফাল্গুন  ১৪২৭  শনিবার ৬ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ফের ঊর্ধ্বমুখী রাজ্যের কোভিড গ্রাফ, বাড়ল দৈনিক সংক্রমিত ও মৃতের সংখ্যা

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 26, 2021 7:42 pm|    Updated: January 26, 2021 8:35 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলল রাজ্যের কোভিড (Covid-19) গ্রাফ। কারণ, সোমবারের তুলনায় মঙ্গলবার কিছুটা হলেও বাড়ল দৈনিক করোনা সংক্রমণ ও মৃতের সংখ্যা। সুস্থতায় কমেছে কিছুটা। তবে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যাও কমেছে খানিকটা। যা স্বস্তি জোগাচ্ছে করোনা পরিস্থিতি ক্লিষ্ট আমজনতাকে।  

রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের মেডিক্যাল বুলেটিন অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২৯৫ জন। যা সোমবারের তুলনায় কিছুটা বেশি। জেলাওয়াড়ি করোনা সংক্রমণের হিসাবে ফের চোখ রাঙাচ্ছে উত্তর ২৪ পরগনা (North 24 Pargana)। সেখানে একদিনে আক্রান্ত হয়েছেন ৯১ জন। তার ঠিক পরেই রয়েছে কলকাতা (Kolkata)। তিলোত্তমায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৩ জন কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন। বাংলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫ লক্ষ ৬৮ হাজার ৬৫০ জন। সোমবারের তুলনায় দৈনিক মৃতের সংখ্যাও বেড়েছে। মঙ্গলবার ৭ জন করোনার বলি হয়েছেন। তার ফলে ভাইরাসের থাবায় এখনও পর্যন্ত মোট ১০ হাজার ১৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। 

[আরও পড়ুন: কাটআউটে মোদির পায়ের কাছে মনীষীদের ছবি! তৃণমূলের বিরুদ্ধে চক্রান্তের অভিযোগ বিজেপির]

তবে সুস্থতার হার মঙ্গলবারেও বেড়েছে বেশ খানিকটা। এখনও পর্যন্ত ৯৭.১৬ শতাংশ মানুষ করোনাকে হারিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গিয়েছেন। একদিনে ৪০৯ জন করোনাকে হারিয়েছেন। বাংলায় মোট করোনা জয়ীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ লক্ষ ৫২ হাজার ৪৯১ জন। সুস্থতার বাড়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়েই কমেছে অ্যাকটিভ কেস। রাজ্যে মোট ৬ হাজার ২৮টি অ্যাকটিভ রয়েছে। প্রথম দফায় সবে চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা টিকাকরণ (Vaccination) কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছেন। সাধারণ মানুষের কবে টিকাকরণ শুরু হবে, সে বিষয়ে কোনও তথ্য কারও কাছে নেই। করোনা মুক্তি কবে হবে, তা এখন লাখ টাকার প্রশ্ন। এখনও তাই টেস্টের উপরেই ভরসা রাখতে হবে। একদিনে  ২৫ হাজার ৩৬৭ জনের কোভিড পরীক্ষা হয়েছে। তার ফলে রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ৭৮ লক্ষ ৭৬ হাজার ৮৯৯ টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। তার মধ্যে ৭.২২ শতাংশ রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে বিশেষজ্ঞদের মত, সামান্য উপসর্গ দেখা দিলেই নমুনা পরীক্ষা করান। মেনে চলুন দূরত্ববিধি। ব্যবহার করুন মাস্ক এবং স্যানিটাইজার।

[আরও পড়ুন: ‘ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে গেলে অনেকের সমস্যা হতে পারে’, ফের ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য জিতেন্দ্রর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement