BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Coronavirus Update: গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে আক্রান্ত ৫৭৪, মৃত ৬

Published by: Paramita Paul |    Posted: December 8, 2021 8:06 pm|    Updated: December 8, 2021 8:21 pm

574 new Coronavirus cases recorded in West Bengal | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ওমিক্রন আতঙ্কের মাঝেই স্বাভাবিক হচ্ছে রাজ্যের করোনা (Coronavirus) চিত্র। পাঁচশোর উপরই রয়েছে রাজ্যে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। আগের দিনের চেয়ে কমল মৃত্যুও। তবে বেড়েছে কলকাতায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা।

এদিকে ওমিক্রন ঝুঁকি কমাতে জেলাগুলিকে সতর্ক করল স্বাস্থ্যদপ্তর। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নির্দেশ মেনে বুধবার এই সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। জেলা স্বাস্থ্যকর্তাদের পাশাপাশি জেলাপুলিশকেও সর্তক থাকতে বলা হয়েছে। প্রয়োজনে স্থানীয়ভাবে কোভিড নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: Mamata Banerjee: ‘বাংলায় চাকরি করতে হলে আঞ্চলিক ভাষা জানা মাস্ট’, বললেন মুখ্যমন্ত্রী]

স্বাস্থ্যদপ্তরের বুধবারের রিপোর্ট বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭৪ জন। যা আগের দিনের চেয়ে বেশকিছুটা বেশি। মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা (Corona Virus) আক্রান্তদের মধ্যে ১৮৭ জন কলকাতার (Kolkata)। অর্থাৎ দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে এদিনও ফের প্রথমে ওই জেলা। আগের দিনের তুলনায় অনেকটাই বেড়েছে সংক্রমণ।

দ্বিতীয় স্থানে উত্তর ২৪ পরগনা (North 24 Parganas)। একদিনে আক্রান্ত সেখানকার ১০২ জন। আগেরদিন তুলনায় কমেছে সংক্রমণ। রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৬,২০, ৮০৩। মৃত্যু বেড়ে দাঁড়াল ১৯ হাজার ৫৬৮ জনের। একদিনে রাজ্যে সুস্থ হয়েছেন ৫৬৮ জন। ইতিমধ্যে করোনাকে হারিয়ে রাজ্যে কোভিডজয়ীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লক্ষ ৯৩ হাজার ৬৫৯ জন।

[আরও পড়ুন: ‘চিনের মতো হতে না চেয়ে নিজেদের শক্তির দিকে জোর দিক দেশ’, মন্তব্য রঘুরাম রাজনের]

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নির্দেশ মেনে দমদম বিমানবন্দরে কোভিড টেস্টের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে আন্তর্জাতিক বিমানে আসা যাত্রীদের কোভিড টেস্টের রির্পোট পেতে সাত থেকে আট ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হয়। নেগেটিভ হলে বাড়ি পাঠানো হয়। কিন্তু ঘটনা হল, এখানেই শেষ রক্ষা নয়। কোভিড নেগেটিভ হওয়ার আট দিন পরে ফের কোভিড পরীক্ষা করতে হবে। দ্বিতীয়বার কোভিড নেগেটিভ হওয়ার পরেই কার্যত স্বস্তি। কিন্তু যদি পজিটিভ রির্পোট আসে তবে সরকারি কোভিড হাসপাতালে ভরতি করা হবে। এবং নিয়ম মেনে লালারস সংগ্রহ করে জিনোম সিক্যুয়েন্সের পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। এটা যেমন একটা দিক, তেমনই স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকেও সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। কোনও জায়গায় কোভিড সংক্রমণ বাড়লে প্রয়োজনে সেই এলাকা চিহ্নিত করতে হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে