৩ মাঘ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৭ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo ফিরে দেখা ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩ মাঘ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৭ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

ধীমান রায়, কাটোয়া: সামান্য বচসার জেরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে বাবাকে কুপিয়ে খুনের  অভিযোগ উঠল এক সিভিক ভলান্টিয়ারের বিরুদ্ধে। সোমবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়া জেলার কালীগঞ্জ থানার আকন্দবেড়িয়া গ্রামে। ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত যুবককে আটক করেছে পুলিশ। তবে এখনও মৃতের পরিবারের তরফে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, নদিয়া জেলার কালীগঞ্জ থানার আকন্দবেড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা পেশায় কৃষক রবীন্দ্রনাথ সাহা। তাঁর তিন ছেলে। বড় ছেলে সুকান্ত সাহা পেশায় সিভিক ভলেন্টিয়ার। বরাবরই বদমেজাজি সুকান্ত। জানা গিয়েছে, সোমবার সকালে বাড়ির কাজে ব্যস্ত ছিলেন সুকান্তর মা। বাবা ও ছোট ভাই ধান তুলছিলেন মাঠে। সকাল সাড়ে ন’টা নাগাদ রবীন্দ্রনাথবাবু ধানের বোঝা মাথায় করে বাড়ির সামনের খামারে আসেন। সেই সময় সেখানে বসে একটি নারকেলের খোসা ছাড়াচ্ছিলেন সুকান্ত। তখনই তুচ্ছ কারণেই বাবার সঙ্গে বচসা বাঁধে সুকান্তর। সেই সময়ই আচমকা বাবাকে কোপায় অভিযুক্ত।

[আরও পড়ুন: ব্যাংক জালিয়াতির শিকার প্রাক্তন সেনাকর্মী, অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব লক্ষাধিক টাকা]

মৃতের এক পুত্রবধূ জানান , “আমার শ্বশুরমশাই মাঠ থেকে ফেরার পর সুকান্তকে বলেন, পরে নারকেলের খোসা ছাড়াবি। এখন মাঠে গিয়ে ধান নিয়ে আয়। একথা শুনেই রাগে ফুঁসতে শুরু করে অভিযুক্ত সুকান্ত। দু’জনের মধ্যে শুরু হয় কথা কাটাকাটি। সেই সময় আচমকা সুকান্তের হাতে থাকা দা দিয়ে শ্বশুরমশাইকে এলোপাথাড়িভাবে কোপাতে থাকে সে।” বিষয়টি নজরে পড়তেই চিৎকার শুরু করে দেন মৃতের মেজ ছেলের স্ত্রী ফাল্গুনীদেবী। চিৎকার শুনে পাড়া প্রতিবেশীরা ছুটে গিয়ে সুকান্তকে ধরে ফেলেন। এরপরই তড়িঘড়ি রক্তাক্ত অবস্থায় কাটোয়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় রবীন্দ্রনাথবাবুকে। সেখানেই চিকিৎসা শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যেই মৃত্যু হয় রবীন্দ্রনাথবাবুর। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই অভিযুক্তকে আটক করেছে পুলিশ। 

ছবি: জয়ন্ত দাস

[আরও পড়ুন: ব্যাংক জালিয়াতির শিকার প্রাক্তন সেনাকর্মী, অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব লক্ষাধিক টাকা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং