BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

করোনা যুদ্ধে জয়, হাসপাতাল থেকে ফেরা স্বামীকে মালা পরিয়ে কাছে টেনে নিলেন স্ত্রী

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 11, 2020 6:59 pm|    Updated: June 11, 2020 6:59 pm

An Images

অরূপ বসাক, মালবাজার: লকডাউনের মধ্যে চেন্নাইয়ে পেটের জ্বালা সহ্য করে দিন কাটানো ছিল এক যুদ্ধ। তারপর বাংলায় ফেরাও কম ঝক্কির না। বাংলায় ফিরেও লড়াই। এবার লড়াই খোদ করোনা ভাইরাসের সঙ্গে। তবে সত্যিকারের লড়াকুরা যে কোনওদিন হার মানেন না তারই প্রমাণ দিলেন মাল ব্লকের ওয়াশাবাড়ি চা বাগানের কলাগাইতি ডিভিশনের বাসিন্দা পূর্ণ ছেত্রী। করোনাকে হারিয়ে বৃহস্পতিবারই বাড়ি ফিরলেন তিনি। মালা পরিয়ে বরণ করে বাড়িতে স্বাগত জানালেন তাঁর স্ত্রী।

নিজের জেলায় সেভাবে উপার্জন হয় না। অথচ কাঁধে রয়েছে স্ত্রী-সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের খরচ চালানোর গুরুদায়িত্ব। তাই বাধ্য হয়ে চেন্নাই পাড়ি দিয়েছিলেন মাল ব্লকের ওয়াশাবাড়ি চা বাগানের কলাগাইতি ডিভিশনের বাসিন্দা পূর্ণ ছেত্রী। তাতে আয় হচ্ছিল ভালই। দিব্যি ভাল-মন্দে দিন কাটছিল সকলের। কেন্দ্র সরকার লকডাউন ঘোষণা করার পরই গোটা পরিস্থিতিই যেন বদলে গেল। প্রথমদিকে ভিনরাজ্যে খাবার জুটছিল পূর্ণর কপালে। তবে শেষের দিকে খাবারটুকুও জোটেনি। বাধ্য হয়ে এ রাজ্যে ফেরার জন্য উদগ্রীব হয়ে ওঠেন তিনি।

[আরও পড়ুন: আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ দিনে শূন্য থেকে ২৫০, উদ্বেগ বাড়াচ্ছে উত্তরের দুই জেলা]

নানা টানাপোড়েনের পর গত ৩০ মে চেন্নাই থেকে নিজের এলাকায় ফেরেন তিনি। সংক্রমণের আশঙ্কায় বাড়ি যাননি। পরিবর্তে সোজা ওদলাবাড়ি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে যান। সেখানে তাঁর লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করতে পাঠানো হয়। ৭ জুন পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে আসে। জানা যায় কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন পূর্ণ। তড়িঘড়ি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে জলপাইগুড়ি কোভিড হাসপাতালে পাঠানো হয় তাঁকে।  চিকিৎসা শুরু হয় পূর্ণর।

এদিকে, পূর্ণ করোনা আক্রান্ত শুনেই চিন্তায় পড়ে যান তাঁর পরিজনেরা। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে বারবারই দুশ্চিন্তা না করার কথা জানানো হয়। চলতি সপ্তাহে আবারও নমুনা পরীক্ষা হয়। দ্বিতীয়বারের পরীক্ষায় জানা যায় পূর্ণ করোনা আক্রান্ত নন। সেই মতো বৃহস্পতিবারই তাঁকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। করোনা যোদ্ধাকে স্বামীকে দেখে আবেগে ভাসেন তাঁর স্ত্রী। মালা পরিয়ে পুষ্পবৃষ্টি করে বাড়িতে স্বাগত জানান তাঁকে। প্রতিবেশীরা তাঁকে অভ্যর্থনা জানান।  কঠিন পরিস্থিতিতে এমন উষ্ণ অভ্যর্থনা তাঁকে নতুন করে বাঁচার শক্তি জোগাচ্ছে বলেই জানান করোনা জয়ী পূর্ণবাবু। 

[আরও পড়ুন: রাস্তা তৈরিকে কেন্দ্র করে শাসকদলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে রণক্ষেত্র পূর্ব বর্ধমান, জখম ৬]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement