৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

দেবাদৃতা মণ্ডল, চুঁচুড়া: রাস্তায় দাঁড়িয়ে টাকা তোলা হচ্ছিল। এক ট্রাকচালক দিতে না চাওয়ায় পুলিশ বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ। এই ঘটনার প্রতিবাদে পুলিশের একটি আউটপোস্টে আগুন ধরিয়ে দেন অন্য ট্রাকচালকরা। পরে ২ নম্বর জাতীয় সড়ক বা দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়েতে অবরোধও করেন। রবিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে হুগলি জেলার দাদপুর থানার মহেশ্বরপুর মোড়ে।

[আরও পড়ুন- ২ দিনের মধ্যে রাজ্যে ঢুকছে বর্ষা, ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা উত্তরবঙ্গে]

স্থানীয়দের অভিযোগ, রবিবার সকালে একটি মহেশ্বরপুর মোড়ের কাছে ট্রাক দাঁড় করিয়ে টাকা তুলছিলেন কয়েকজন পুলিশকর্মী। সেসময় এক ট্রাকচালক টাকা দিতে অস্বীকার করেন। এই নিয়ে পুলিশকর্মীদের সঙ্গে বচসা শুরু হয় তাঁর। এর জেরে পুলিশকর্মীরা তাঁকে বেধড়ক মারধর করেন। চোখের সামনে এই ঘটনা দেখে উত্তেজিত হয়ে পড়েন অন্য ট্রাকচালকরা। কাছেই থাকা পুলিশের একটি আউটপোস্ট পুড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি তাদের গাড়িও আটকে রাখেন তাঁরা।

মহেশ্বরপুর মোড়ে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভও দেখাতে শুরু করেন তাঁরা। ফলে দীর্ঘক্ষণ ধরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে দু’নম্বর জাতীয় সড়ক। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে দাদপুর থানার পুলিশ। কিন্তু, তাদের দেখে আরও উত্তেজিত হয়ে পড়ে ঘটনাস্থলে থাকা জনতা। অবস্থা জটিল হয়ে পড়লে নামানো হয় ব়্যাফ। আসেন হুগলি জেলা পুলিশের (গ্রামীণ) উচ্চপদস্থ আধিকারিকরাও। পরে দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির আশ্বাস দেওয়া হলে উত্তেজনা প্রশমিত হয়।

[আরও পড়ুন- তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে কল্যাণীতে চলল গুলি-বোমা, গুরুতর জখম ১]

বিক্ষোভকারীরা জানান, প্রতিদিনই ওই জায়গায় দাঁড়িয়ে ট্রাকচালকদের থেকে টাকা তোলে পুলিশ। রবিবার সকালে এক ট্রাকচালক টাকা দিতে রাজি হননি। তাই তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয়। এর প্রতিবাদ জানাতেই বিক্ষোভ দেখানো হয়। দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানাচ্ছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং