BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শুক্রবার ২০ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রান্নাঘরে গ্যাস জ্বালাতেই তীব্র বিস্ফোরণ, ঝলসে গেলেন গৃহকর্ত্রী

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 31, 2020 7:20 pm|    Updated: January 31, 2020 8:12 pm

A woman burnt due to blast into the kitchen at Balurghat

রাজা দাস, বালুরঘাট: বাড়ির মধ্যে বড়সড় বিস্ফোরণ। ঝলসে গেলেন এক মহিলা। বালুরঘাটের ঘটনায় ওই মহিলাকে উদ্ধার করে বালুরঘাট মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। শরীরের অনেকটা অংশ ঝলসে যাওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে কলকাতায় রেফার করা হয়েছে। রান্নার গ্যাস থেকে বিস্ফোরণ ঘটেছে বলে পরিবারের তরফে দাবি করা হলেও, তার সত্যতা নিয়ে সংশয়ে প্রতিবেশীরা। ঘরে কোনও বিস্ফোরক মজুত ছিল কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। তদন্তে নেমেছে বালুরঘাট থানার পুলিশ।

balurghat-blast1

শুক্রবার দুপুরে আচমকাই বিকট শব্দে কেঁপে ওঠে বালুরঘাটের বিশ্বাসপাড়া এলাকার বাসিন্দারা। শব্দের উৎস স্থানীয় ব্যবসায়ী শিবু সেনের বাড়ি। দুপুরে সেলুনে গিয়েছিলেন বাড়ির কর্তা শিবু সেন। ঘরে ছিলেন তাঁর স্ত্রী প্রতিমা সেন। সেসময় বাড়ির ভিতর হওয়া বিকট শব্দে কেঁপে ওঠে এলাকা। প্রাথমিক ধাক্কা সামলে স্থানীয় বাসিন্দারা শিবু সেনের বাড়িতে ছুটে যান। বাড়ি থেকে বছর পঁয়তাল্লিশের প্রতিমা সেনকে গুরুতর আহত অবস্থা উদ্ধার করে বালুরঘাট জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান তাঁরা। হাসপাতাল সূত্রে খবর, শরীরের অধিকাংশ জায়গা ঝলসে যাওয়ার কারণে তাঁকে রেফার করে দেওয়া হয়েছে কলকাতায়।

[আরও পড়ুন: বড় সাফল্য শুল্ক দপ্তরের, ১০ কোটি টাকা মূল্যের দুষ্প্রাপ্য মূর্তি উদ্ধার শিলিগুড়িতে]

বাড়িতে বিস্ফোরণের ঘটনায় খবর পেয়ে বাড়িতে ফেরেন মালিক শিবু সেন। ঘটনাস্থলে যায় বালুরঘাট থানার পুলিশ। দেখা যায়, রান্নাঘরের দরজা-সহ বাইরের ঘরে আসবাসপত্র সব ভেঙে তছনছ। তবে রান্নাঘর ও সেখানকার সামগ্রী এবং গ্যাস সিলিন্ডারগুলি অক্ষত রয়েছে। শিবুবাবু অবশ্য দাবি করেন, গ্যাস সিলিন্ডার থেকে এই বিস্ফোরণ ঘটেছে। ঘরের পরিস্থিতি দেখে তা মানতে চাননি এলাকার মানুষজন। তাঁদের পালটা দাবি, ঘরে বিস্ফোরক জাতীয় কিছু মজুত ছিল, সেখান থেকে এই ঘটনা ঘটেছে। বাড়ির মালিক শিবু সেন বলেন, “আমি বাড়ি ছিলাম না। স্ত্রী জল গরম করতে রান্নাঘরে গিয়ে গ্যাস জ্বালায়। সিলিন্ডার ব্লাস্ট করেনি। কিন্তু ওভেনে জমে থাকা গ্যাস ব্লাস্ট করে দরজা ও অনান্য জিনিসপত্র ভেঙে গেছে। আমার স্ত্রী আহত হয়েছে।” স্থানীয় বাসিন্দা প্রদীপ কুমার সাহা জানান, “বিকট শব্দ। আমরা ঘরে গিয়ে দেখি, চারটি সিলিন্ডারই ভাল অবস্থায় আছে। সিলিন্ডার ব্লাস্ট করে এই ঘটনা ঘটেনি। এমন কিছু ঘরে রাখা ছিল, যা থেকে এই বিস্ফোরণ ঘটেছে। আমরা এলাকার মানুষ আতঙ্কে রয়েছি।”

[আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণ রুখতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হলদিয়া বন্দরে, কর্মীদের নিয়ে সচেতনতা শিবির]

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান ডিএসপি (সদর) ধীমান মিত্র। তিনি জানান যে তাঁরা সব কিছু দেখে এসেছেন। কীভাবে এই ঘটনা ঘটল, তা এই মূহূর্তে অজানা। তবে দমকলকে গোটা বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত তথ্য দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে এসেছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। বাড়িতে বিস্ফোরক মজুত ছিল কি না, তাও দেখা হচ্ছে। এই ঘটনার পর থেকে আশঙ্কায় রয়েছেন স্থানীয় মানুষজন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে