৭ আষাঢ়  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২২ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্রেমিকা কার? দ্বন্দ্বের জেরে মদের আসরে বন্ধুর হাতে খুন যুবক

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 11, 2020 10:28 am|    Updated: March 11, 2020 10:28 am

A young man murdered in South 24 Parganas by his friend

ছবি: প্রতীকী।

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: প্রেমিকাকে নিয়ে বচসার জের। মদের আসরে খুন হলেন এক যুবক। তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর জখম অবস্থায় চিকিৎসাধীন আরও একজন। মৃত যুবকের নাম বাবু হালদার (১৯)। আহত হয়েছেন মিহির মজুমদার। মঙ্গলবার রাতের এই ঘটনায় দক্ষিণ ২৪ পরগনার নরেন্দ্রপুর থানার খুদিরাবাদ এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। অভিযোগ, মঙ্গলবার রাতে খুদিরাবাদ এলাকার একটি মাঠে নেশার আসর বসেছিল। সেখানেই একটি মেয়েকে নিয়ে বচসা বাঁধে। মেয়েটি কার সঙ্গে প্রেম করবে, তা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হয়ে যায়। যা পরে খুনোখুনির পর্যায়ে পৌঁছে যায়। পাঁচ অভিযুক্তকে ইতিমধ্যে আটক করেছে পুলিশ। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মঙ্গলবার রাতে কয়েকজন যুবক  এলাকার খোলা মাঠে মদ-গাঁজার আসর বসায়। মেয়েটি কার প্রেমিকা হবে, তা নিয়ে সেই মদের আসরেই দুই যুবকের মধ্যে বচসা শুরু হয়। এরপর অভিযুক্ত যুবক বাবুকে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে বলে অভিযোগ। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত পুলিশ পাঁচজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, মদের আসরে বচসার পরই বাবুকে পেটে ও বুকে ছুরি দিয়ে আঘাত করে অন্য কয়েকজন যুবক। বাবুকে বাঁচাতে গেলে মিহির মজুমদারকেও আক্রমণ করা হয়। মিহিরের শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এরপর দুই যুবককে এলাকায় ফেলে পালিয়ে যায় এই আসরে থাকা অন্যরা।

[আরও পড়ুন : শিলিগুড়িতে রেলিং টপকে খাদে গাড়ি, ঘটনাস্থলে মৃত ২ পর্যটক]

পরে স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁদের পড়ে থাকতে দেখে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। যদিও চিকিৎসকরা বাবু মজুমদারকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। মিহির মজুমদারের অবস্থা এখন স্থিতিশীল বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। মহিলা সংক্রান্ত কারণে এই গন্ডগোল বলে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান। যে প্রেমিকাকে কেন্দ্র করেই গন্ডগোল তাঁরও খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন : ২১৫ বছরের রীতি মেনে দোলেই দু্র্গা আরাধনা হয় এই শহরে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement