২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  বুধবার ১০ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সঙ্গ দিল না শরীর, ৫ দিনেই অনশন প্রত্যাহার করে হাসপাতালে ভরতি অসুস্থ বিমল গুরুং

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 29, 2022 8:05 pm|    Updated: May 29, 2022 8:34 pm

Bimal Gurung was admitted to hospital after 5 days hunger strike | Sangbad Pratidin

অভ্রবরণ চট্টোপাধ্যায়, শিলিগুড়ি: জিটিএ নির্বাচন (GTA Election) নয়, আগে পাহাড়ে চাই স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান। নির্বাচন ঘোষণার পরও এই দাবিতে অনড় থেকে আমরণ অনশন করে নতুন করে আন্দোলনের পথে হেঁটেছিলেন একদা পাহাড়ের দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতা বিমল গুরুং (Bimal Gurung)। ২৫ তারিখ থেকে সিংমারিতে মোর্চার কার্যালয়ের সামনে অনশন মঞ্চ গড়ে প্রতিবাদ চালিয়ে যাচ্ছিলেন। তবে সঙ্গ দিল না শরীর। স্বাস্থ্যের প্রয়োজনে অনশন প্রত্যাহার করতে বাধ্য হলেন তিনি। উচ্চরক্তচাপ, সুগারের রোগী গুরুং রবিবার অনশন মঞ্চে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। সন্ধেবেলা তাঁকে দার্জিলিং জেলা হাসপাতালে ভরতি করা হয়। গুরুংয়ের রাজনৈতিক সঙ্গী রোশন গিরি জানান, শারীরিক অসুস্থতার জন্য অনশন প্রত্যাহার করেছেন গুরুং।

প্রায় ১০ বছর পর পাহাড়ে জিটিএ নির্বাচন হচ্ছে। জুনের ২৬ তারিখ ভোট এবং ২৯ তারিখ ফলপ্রকাশ। রাজ্য সরকারের তরফে এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি হওয়ার পর থেকেই তার বিরোধিতায় অনশন শুরু করেন বিমল গুরুং। তাঁর দাবি, আগে নির্বাচন নয়, পাহাড়ে স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান করুক রাজ্য সরকার। তাঁর এই আন্দোলন প্রত্যাহারের আরজি নিয়ে শনিবার দেখা করেছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী বুলুচিক বড়াইক। নির্বাচনী বিধি লাগু থাকায় এ নিয়ে আলোচনা এখনই সম্ভব নয়, ভোট মিটলেই রাজ্য সরকার আলোচনা করবে বলে আশ্বাস দিয়েছিলেন মন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: গুমনামী বাবাই নেতাজি! নিরপেক্ষ তদন্ত চেয়ে পরিবারের একাংশের চিঠি মোদিকে]

এই আশ্বাসে অবশ্য গলেননি গুরুং। অনশনে অনড় ছিলেন। সেদিন থেকেই অসুস্থ হতে শুরু করেন। সুগারের রোগী হওয়ায় খাবার না খাওয়ায় অসুস্থতা বাড়তে থাকে। রবিবার তাঁর শারীরিক অবস্থার অনেকটা অবনতি হয়। এদিন বিমল গুরুংয়ের সঙ্গে অনশন মঞ্চে দেখা করেন দার্জিলিংয়ের সাংসদ রাজু বিস্তা তাঁকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যান দলের কর্মীরা। তখনই ইঙ্গিত মিলেছিল, এবার অনশন প্রত্যাহার করা ছাড়া উপায় নেই তাঁর। পরে রোশন গিরি (Roshan Giri) জানান, তাঁকে স্যালাইন দেওয়া হয়েছে। শরীরের কথা ভেবে গুরুংকে অনশন প্রত্যাহারে বোঝানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: হজরত মহম্মদকে নিয়ে মন্তব্যে বিতর্কের ঝড়, বিজেপি নেত্রীর বিরুদ্ধে দায়ের FIR]

অন্যদিকে, রবিবার পাহাড়ে জিটিএ নির্বাচনে প্রার্থী ঘোষণা করেছে তৃণমূল (TMC)। ৪৫ আসনের জিটিএ-তে দশটি আসনে প্রার্থী দিয়েছে ঘাসফুল শিবির। অন্যতম প্রার্থী বিনয় তামাং (Binay Tamang)। কারও সঙ্গে তৃণমূলের কোনওরকম জোট হয়নি। এককভাবেই এই আসনগুলিতে লড়াই করবে তারা। রবিবার শিলিগুড়িতে দলীয় কার্যালয়ে তা জানিয়ে দেন রাজ্যের বিদ্যুৎ মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। এদিন তিনি বলেন, “আমরা কোনও জোট করছি না। পুরনির্বাচনের মতোই ১০আসনে লড়ব।” এদিন অনীত থাপার ভারতীয় গোর্খা প্রজাতান্ত্রিক মোর্চাও আরও ৯জনের নাম ঘোষণা করল। 
         

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে