BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বিষ্ণুপুরে ঢোকার অনুমতি নেই, এবছর ভোট দিতে পারবেন না সৌমিত্র খাঁ

Published by: Bishakha Pal |    Posted: May 11, 2019 7:46 pm|    Updated: May 11, 2019 7:46 pm

An Images

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: আদালতের নির্দেশে এবছর লোকসভা নির্বাচনে ভোটই দেওয়া হচ্ছে না বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁর। রাতের মধ্যে আদালতের নতুন কোন নির্দেশ না এলে রবিবার, ভোটের দিন নিজের কেন্দ্রে ঢুকবেন না বলেই শনিবার দুর্গাপুরে জানালেন সৌমিত্রবাবু। প্রার্থী ঘোষণার পর দল ও তাঁর পরিবার যেভাবে সৌমিত্র খাঁকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার জন্যে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন, সেই প্রার্থীই নিজে ভোট দিতে পারবেন না বলে কিছুটা হতাশাই প্রকাশ করেছেন।

এদিন দুর্গাপুরে সৌমিত্র খাঁ জানান, “গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করা নিয়েও আমাকে সুপ্রিম কোর্ট হাই কোর্টের রায়কেই মান্যতা দিতে বলেছেন। এই নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আমি আবেদন করলে আদালত জানায়, ভোট দেওয়ার অধিকার থেকে আমরা কাউকে বঞ্চিত করতে পারি না। তবে এই ক্ষেত্রে হাই কোর্টের রায়কে মান্যতা দিতে হবে বলেও জানিয়েছে শীর্ষ আদালত। তাই হাই কোর্টের রায়কে মর্যাদা দিতেই আমি ভোট দেব না।” ভোটের দিন পাত্রসায়ের ও খণ্ডঘোষে থাকবেন বলে জানান তিনি। ভোটের দিন বহিরাগতরা তাঁর কেন্দ্রে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে প্রভাবিত করে ভোট লুটের চেষ্টা করবে বলেও অভিযোগ করেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি প্রার্থী। ভোট লুটে যদি প্রশাসন ব্যর্থ হয়, তবে জেলাশাসকের নামে থানায় এফআইআর করবেন বলেও জানান সৌমিত্রবাবু।

[ আরও পড়ুন: ভোটে প্রভাবিত করছেন দিলীপ, শাসকদলের অভিযোগ ঘিরে রণক্ষেত্র এগরা ]

প্রসঙ্গত, টাকা নিয়ে চাকরি না দেওয়ার অভিযোগে সৌমিত্রর বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয় বাঁকুড়ার বড়জোড়া থানায়৷ অভিযোগ করেছিলেন তাঁরই পিসতুতো ভাই প্রশান্ত মণ্ডল৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করে বাঁকুড়ার বড়জোড়া থানা৷ গ্রেপ্তারি এড়াতে কলকাতা হাই কোর্টে আগাম জামিনের আবেদন করেন সৌমিত্র খাঁ৷ আদালত তাঁর গ্রেপ্তারির উপর স্থগিতাদেশ জারি করে। নির্দেশে বলা হয়, ছ’সপ্তাহের জন্য বাঁকুড়া জেলায় ঢুকতে পারবেন না সৌমিত্র। সেই কারণে ভোট দিতেও যেতে পারবেন না বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ।

[ আরও পড়ুন: যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত খুনের আসামির রহস্যমৃত্যু, বিষ খেয়ে আত্মহত্যা বলে অনুমান ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement