BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

আমফানে ক্ষতি না হলেও মিলছে আর্থিক সাহায্য! পাণ্ডুয়ায় ত্রাণ নিয়ে দেদার ‘দুর্নীতি’ বিজেপির

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 2, 2020 5:12 pm|    Updated: July 2, 2020 5:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তৃণমূলের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই আমফানের (Amphan)  ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। শাসকদলের তরফে দুর্নীতিগ্রস্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে। তা নিয়েই আপাতত সরগরম রাজ্য রাজনীতি। তার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগে নাম জড়াল বিজেপি (BJP) এবং সিপিএমের।

সম্প্রতি উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা বিধানসভার কালিয়ারা পঞ্চায়েতের বিজেপি নেতানেত্রীদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে সুর চড়িয়েছিলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক (Jyotipriyo Mullick)। এবার সেই অভিযোগের তালিকাতে নাম জুড়ল হুগলির পাণ্ডুয়ার বেলুন ধামাসীন পঞ্চায়েতের দুই বিজেপি সদস্যেরও। অভিযোগ, তাঁরা আমফানের ত্রাণ নিয়ে স্বজনপোষণ করেছেন। ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে ক্ষতি না হওয়া সত্ত্বেও আর্থিক সাহায্য পাচ্ছেন অনেকেই। তারই প্রতিবাদে তৃণমূলের তরফে একটি মিছিলও করা হয়। ‘দুর্নীতি’তে নাম জড়ানো গেরুয়া শিবিরের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে ব্যবস্থা নিতে হবে বলে মিছিল থেকে দাবিও ওঠে। মিছিলকারীদের অভিযোগ, বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা ওই মিছিলে হামলা চালায়। মিছিলে অংশ নেওয়া বেশ কয়েকজন হামলায় জখম হয়েছেন বলেই অভিযোগ। আবার এদিকে, দুর্নীতি প্রসঙ্গে নাম জড়িয়েছে সিপিএমেরও। অভিযোগ, দক্ষিণ ২৪ পরগনার রাধাকান্তপুরে সিপিএম পরিচালিত পঞ্চায়েতও আমফানের ত্রাণ বিলি নিয়ে দুর্নীতি করছে। 

[আরও পড়ুন: মালদহে টোটো বিস্ফোরণের ঘটনায় বাড়ছে রহস্য, NIA তদন্তের দাবি সাংসদের, ঘটনাস্থলে STF]

যদিও নিজেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ খারিজ করতে ব্যস্ত গেরুয়া শিবির। বারবারই তারা দাবি করছে এমন কাজ গেরুয়া শিবিরের কেউই করতে পারছে না। বৃহস্পতিবার রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষও (Dilip Ghosh) সাংবাদিক বৈঠক করে ‘দুর্নীতি’র অভিযোগ নস্যাৎ করেছেন। তিনি বলেন, “আমি প্রয়োজনে তৃণমূলের দুর্নীতিগ্রস্তদের নাম এখনই বলে দিতে পারব। যারা বিজেপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলছে তারা তাদের নাম বলুক। আমরা তদন্ত করে নিশ্চয়ই ব্যবস্থা নেব।” তৃণমূলের দুর্নীতিগ্রস্ত নেতানেত্রীদের শোকজ প্রসঙ্গেও স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিমায় খোঁচা দিতে ছাড়েননি গেরুয়া শিবিরের নেতা। বিজেপি রাজ্য সভাপতির দাবি, “শুধু শোকজ করে কিছু হবে না। আইনি ব্যবস্থা নিতে হবে।” তবে দুর্নীতি প্রসঙ্গে তাঁদের দিকে আঙুল উঠলেও, কোনও প্রতিক্রিয়া সিপিএম নেতৃত্বের তরফে পাওয়া যায়নি।  

[আরও পড়ুন: বন্ধুর ফোন পেয়ে রাতে বাড়ি থেকে বেরনোই কাল, সকালে পুকুরে মিলল কিশোরীর দেহ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement