BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ফ্ল্যাট থেকে একাকী প্রৌঢ়ার পচাগলা দেহ উদ্ধার, মৃত্যুর কারণ নিয়ে বাড়ছে ধোঁয়াশা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 26, 2019 5:48 pm|    Updated: May 26, 2019 5:59 pm

An Images

ফাইল ছবি।

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য, বারাসত:  ফ্ল্যাট থেকে প্রৌঢ়ার পচাগলা দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতের নবপল্লী এলাকায়। রবিবার সকালে আবাসনের অন্যান্য বাসিন্দারা দুর্গন্ধ পেয়ে খবর দেয় বারাসত থানায়। পুলিশ আবাসন থেকে প্রৌঢ়ার পচাগলা দেহ উদ্ধার করে। কীভাবে মৃত্যু হল ওই মহিলার, তা নিয়ে ধন্দে পুলিশ। 

[আরও পড়ুন: নয়া দায়িত্ব পেয়েই পুরনো কর্মীদের গুরুত্ব দিয়ে ফিরিয়ে আনতে চান জিতেন্দ্র]

জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরেই উত্তর ২৪ পরগনার বারাসত থানার নবপল্লী এলাকার একটি আবাসনে থাকতেন সুকন্যা সেনগুপ্ত নামে বছর ৬২-এর ওই মহিলা। দূর সম্পর্কের এক বোন ছাড়া আর কোনও আত্মীয় ছিল না ওই মহিলার। সেই বোনও তাঁর সঙ্গে থাকতেন না। ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন তিনি। এমনকী প্রতিবেশীদের সঙ্গেও মেলামেশা করতেন না ওই মহিলা। স্থানীয় সূত্রে খবর, দিন দশেক আগে শেষবার ওই মহিলাকে দেখতে পান স্থানীয়রা। তারপর আর কারও সঙ্গেই দেখা হয়নি সুকন্যা দেবীর। 

[আরও পড়ুনঅব্যাহত ভোট পরবর্তী হিংসা, জয়ী আসনেই তৃণমূলের আক্রমণের মুখে বিজেপি]

পরে শনিবার রাত থেকেই আবাসনে দুর্গন্ধ পাচ্ছিলেন বাসিন্দারা। সন্দেহ হওয়ায় রবিবার সকালে বারাসত থানায় খবর দেন তাঁরা। পাশপাশি, খবর পাঠানো হয় ওই মহিলার আত্মীয়দেরও। এরপরই বারাসত থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে প্রৌঢ়ার পচাগলা দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। তবে কীভাবে মৃত্যু হল ওই মহিলার তা নিয়ে ধন্দে পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে খবর, বরাবর ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন ওই মহিলা। কারও সঙ্গে খুব একটা মেলামেশা না করলেও তাঁর কোনও শত্রুও ছিল না তাঁর। প্রাথমিত তদন্তে পুলিশের অনুমান, অসুস্থতার কারণেই মৃত্যু হয়েছে ওই প্রৌঢ়ার। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরেই মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে বলে জানিয়েছেন তদন্তকারীরা। 

                                      [আরও পড়ুন: বিজেপিকে ভোট দেওয়ায় গ্রামে ঢুকে ‘দাদাগিরি’, তৃণমূল নেতাদের পালটা গণধোলাই  ]                

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement