১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বউবাজারের পর এবার আতঙ্ক হাওড়ায়। জেলার প্রায় ৪০০টি বাড়িকে বিপজ্জনক ঘোষিত করল হাওড়া পুরসভা। এই নিয়ে বাড়িগুলিতে নোটিসও পাঠানো হয়েছে। হাওড়া ময়দান থেকে স্টেশন হয়ে গঙ্গার নিচে দিয়ে সুড়ঙ্গ প্রবেশ করেছে শহর কলকাতায়। ফলে এখানেও বউবাজারের মতো একই কারণে বাড়ি ভেঙে পড়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

তবে হাওড়ার পরিস্থিতি আরও দুরূহ হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ হাওড়া ময়দান ও হাওড়া স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় অনেক পুরনো বাড়ি রয়েছে। এমনিতেই সেগুলির দশা জরাজীর্ণ। তার উপর মাটির নিচ দিয়ে সুড়ঙ্গ হওয়ায় বিপদ আরও বেড়েছে। ইতিমধ্যেই হেলে পড়েছে বেশ কয়েকটি বাড়ি। তার উপর বউবাজারের স্মৃতি এখনও টাটকা। এখনও সেখানে মাঝে মধ্যেই খসে পড়ছে চাঙড়। ফলে আতঙ্ক বাড়ছে হাওড়াবাসীদের মধ্যে।

[ আরও পড়ুন: বিপর্যয় অব্যাহত বউবাজারে, ফের ভেঙে পড়ল বাড়ির একাংশ ]

এদিকে ৪০০টি বাড়িকে হাওয়া পুরসভা নোটিস দেওয়ার পর প্রশ্ন উঠেছে, যদি বাড়িগুলি বিপজ্জনক হয়ে থাকে, তাহলে কেন সেগুলি ভেঙে ফেলা হচ্ছে না বা পুনর্নির্মাণ করা হচ্ছে না? বউবাজারের মতো বাসিন্দাদের স্থানান্তরিত করে মেরামতির কাজ তো শুরু করাই যায়। কিন্তু হাওড়া পুরসভার তরফে জানানো হয়েছে, এই বাড়িগুলির ক্ষেত্রে শরিকি বিবাদ রয়েছে। কোনও কোনও ক্ষেত্রে আবার প্রোমোটারদের সঙ্গে ভাড়াটের সমস্যাও রয়েছে। ফলে আইনি জটিলতা এর মধ্যে এসে পড়েছে। সেই কারণেই পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা এখনই সম্ভব নয়। আর বাসিন্দাদের স্থানান্তরিত না করায় বাড়ি ভাঙার কাজ শুরু করতে পারছে না পুরসভা।

হাওড়া ময়দান এলাকায় বিপজ্জনক ঘোষিত হওয়া বাড়িগুলির বাসিন্দাদের এখন শাঁখের করাত অবস্থা। তাঁদের বক্তব্য, বাড়িগুলি জরাজীর্ণ। তার ফর মাঝে মধ্যেই সেগুলি কেঁপে ওঠে। মাটির নিচ দিয়ে সুড়ঙ্গ হওয়ায় বাড়ি ধসে পড়ার সম্ভাবনাও প্রবল। বউবাজারে ঘটনা তা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে। কিন্তু যদি বাড়ি মেরামতি শুরু হয় তবে তাঁরা কোথায় যাবেন? যদিও এর উত্তর এখনও পাওয়া যায়নি।

[ আরও পড়ুন: বড়বাজারে বড়সড় হাওলা চক্রের পর্দাফাঁস করল পুলিশ, জালে দুই ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং