৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সৌরভ মাজি, বর্ধমান:  ভাইপোকে খুন করতে প্রায় ৩ লক্ষ টাকা দিয়ে ভাড়াটে খুনী নিয়োগ করেছিল কাকা। পরিকল্পনামাফিক ডেকে নিয়ে গিয়ে হাতুরি দিয়ে মাথায় আঘাত করে খুন করা হয় দেওয়ানদিঘির বড়কাশিয়াড়া গ্রামের সিভিক ভলান্টিয়ার রবীন্দ্রনাথ ঘোষ (৩৭)-কে। খুনের ঘটনার ১০ দিনের মাথায় তার কিনারা করল বর্ধমান থানার পুলিশ। গ্রেফতার করা হয়েছে রবীন্দ্রনাথের কাকা বিপ্লব ঘোষ দুই শাগরেদ রাজু মুণ্ডা ও মানবেন্দ্রনাথ চাকী ওরফে মানসকে। পূর্ব বর্ধমানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর) প্রিয়ব্রত রায় বলেন, “সম্পত্তি বিবাদে এই খুন করা হয়েছে। মৃতের কাকা ভাড়াটে খুনি দিয়ে এই কাজ করিয়েছে। আমরা নিহতের কাকা ও তার দুই শাগরেদকে গ্রেফতার করেছি।”

[অগ্নিকাণ্ডের পর তিনদিন পার, ঘোলার কারখানা থেকে উদ্ধার দেহাংশ]

গত ৪ ফেব্রুয়ারি ভোরে বর্ধমানের রথতলা এলাকায় বাঁকা নদীর সেতুর নীচে রবীন্দ্রনাথের দেহ উদ্ধার হয়। তদন্তে নামে বর্ধমান থানার পুলিশ। বিভিন্ন সূত্রে থেকে তথ্য সংগ্রহের পাশাপাশি বিভিন্ন জনকে জেরাও করেছেন তদন্তকারীরা। সম্পত্তি সংক্রান্ত বিবাদের কথা জানার পর জেরা করা হয় মৃতের কাকা বিপ্লব ঘোষকেও। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, ভাড়াটে খুনি হিসেবে যাদের নিয়োগ করা হয়েছিল, তাদের মধ্যে রাজু মৃতের পূর্ব পরিচিত।  নিহত সিভিক ভলান্টিয়ারের পরিবারের সঙ্গে বিপ্লবদের সম্পত্তি নিয়ে পুরনো বিবাদ ছিল। যা নিয়ে আদালতে মামলাও হয়েছে। সম্পত্তি বিবাদের আক্রোশ থেকেই বিপ্লব ভাইপোকে খুনের ছক করে বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে।

তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, সিভিক ভলান্টিয়ার রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে খুন করার জন্য রাজু ও মানবেন্দ্রকে তিন লক্ষ টাকা দিয়েছিল বিপ্লব।  ৩ ফেব্রুয়ারি ওই সিভিক ভলান্টিয়ারকে রথতলা সংলগ্ন লাকুড্ডি এলাকায় তার বাড়িতে ডাকে রাজু। পূর্ব পরিচিত ও  হওয়ায় সুবাদে  লাকুড্ডিতে চলেও যান তিনি। পূর্ব বর্ধমানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর) প্রিয়ব্রত রায় জানিয়েছেন, জেরায় ধৃতেরা জানিয়েছে, রাজুর বাড়িতে মাথায় হাতুড়ি মেরে রবীন্দ্রনাথকে খুন করা হয়। গভীর রাতে দেহ ফেলে দেওয়া হয় বাঁকা নদীর  সেতুর নীচে। যে ঘরে খুন করা হয়েছিল বলে অভিযোগ, সেই ঘরটি সিল করে দিয়েছে পুলিশ। হাতুড়িটিও উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

ছবি: মুকুলেশুর রহমান

 [ কলকাতা থেকে ফিল্মি কায়দায় অপহরণ, আসানসোলে ব্যবসায়ীকে উদ্ধার পুলিশের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং