BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বাঁকুড়ায় তুঙ্গে ভোট পরবর্তী হিংসা, অভিযুক্ত শাসক-বিরোধী উভয়েই

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 24, 2019 5:53 pm|    Updated: May 24, 2019 8:19 pm

Clash between TMC and BJP worker in Bankura's shaltora area.

টিটুন মল্লিক, বাঁকুড়া: সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে পরাজিত করে বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছেন বিজেপি প্রার্থী সুভাষ সরকার। ফল ঘোষণা হতেই বাঁকুড়ার বিভিন্ন এলাকায় শুরু হয়েছে রাজনৈতিক সংঘর্ষ। শুক্রবার সকালে শালতোড়ায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন এক ব্যক্তি। বিজেপির অভিযোগ,  তৃণমূলের ব্লক সভাপতির ভাগ্নের গুলিতে আহত হয়েছেন ওই ব্যক্তি।

[আরও পড়ুনঘরের মেয়ে মিমির জয়, মিষ্টি বিতরণ-পুজোপাঠে ব্যস্ত জলপাইগুড়ির পাণ্ডাপাড়া]

বৃহস্পতিবারই লোকসভা নির্বাচনের ফলপ্রকাশ হয়েছে। ফলাফল স্পষ্ট হতেই বিজয় উল্লাসে মেতে ওঠে বিজেপির কর্মী, সমর্থকরা। বিভিন্ন জায়গায় বিজয় মিছিল বের করে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার জয়ের বিষয়টি স্পষ্ট হতেই বাঁকুড়ার শালতোড়া এলাকায় বিজয় মিছিল বের করে দলীয় কর্মীরা। সেই সময় গণনাকেন্দ্র থেকে ফিরছিলেন শালতোড়া ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি কালিপদ রায়। জানা গিয়েছে, বিরোধী দলের বিজয় মিছিল নজরে পড়তেই মেজাজ হারান তিনি। অভিযোগ, গাড়ি থেকে নেমেই মিছিল উদ্দেশ্য করে গালিগালাজ করতে শুরু করেন কালিপদবাবু।

ওই মুহূর্তে ঘটনাটি বড় আকার না নিলেও, পরের দিন অর্থাৎ শুক্রবার সকালে কালিপদ রায়ের বাড়িতে চড়াও হয় স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। অভিযোগ, কালিপদ রায়ের বাড়িতে ভাঙচুর চালায় তাঁরা। অভিযোগ, সেই সময় কালিপদ রায়ের বাড়ির ভিতর থেকে তাঁর ভাগ্নে বাইরে থাকা বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। তাতে আহত হন বিদ্যুৎ দাস নামে এক ব্যক্তি। এরপরই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। 

[আরও পড়ুন: আপনার কেন্দ্রে কে, কত ব্যবধানে জিতল? জানুন রাজ্যের ৪২ কেন্দ্রের বিস্তারিত ফল]

যদিও বিজেপির অভিযোগ ভিত্তিহীন বলেই দাবি করেছেন কালিপদবাবু। তিনি বলেন, “তাঁর ভাগ্নে সেই সময় ঘটনাস্থলে ছিলেন না। আর বাড়িতে আগ্নেয়াস্ত্রও ছিল না। আমাকে মিথ্যে অভিযোগে ফাঁসানো হচ্ছে।”  তাঁর অভিযোগ, বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফলেই বিদ্যুৎ দাস নামে ওই ব্যক্তি আহত হয়েছেন। সেই ঘটনাকে ধামাচাপা দিতেই তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হচ্ছে বলে দাবি কালিপদবাবুর। পুলিশ সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।  অন্যদিকে, ঝাড়গ্রামের জামবনি ব্লকের হাটকুড়া গ্রামেও আক্রান্ত  তৃণমূল সমর্থক। তাঁদের বাড়ি ও দোকানে ভাঙচুর ও লুঠপাঠ চালানোর অভিযোগ উঠছে বিজেপি সমর্থকদের বিরুদ্ধ। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি।   

দেখুন ভিডিও:

\

ভিডিও: প্রতিম মৈত্র 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে