১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

২ গোষ্ঠীর বোমাবাজির মাঝে পড়ে মৃত যুবক, ক্ষোভে ফুঁসছে বীরভূমের কাঁকড়তলা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: February 20, 2020 10:02 am|    Updated: February 20, 2020 10:02 am

Clash broke out between two gangs in Birbhum, one person died

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২ দুষ্কৃতী দলের সংঘর্ষের মাঝে পড়ে যুবকের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল বীরভূমের কাঁকড়তলা এলাকায়। মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে দেহ আগলে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয়রা। দীর্ঘক্ষণ পর পুলিশি আশ্বাস মিলতে ওঠে অবরোধ। তবে ঘটনার পর দীর্ঘক্ষণ পেরিয়ে গেলেও এখনও থমথমে এলাকা।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বীরভূমের কাঁকড়তলার হজরতপুরের বাসিন্দা লকাই দাস নামে এক ব্যক্তি। তার গাড়ি চালাতেন কৃষ্ণ দাস নামে এক যুবক। গাড়ি নিয়েই তাদের দু’জনের মধ্যে অশান্তি হয়। অভিযোগ, সেই সময় কৃষ্ণকে মারধরও করে লকাই। পালটা লকাইয়ের উপর হামলা চালায় কৃষ্ণ। তবে সেই সময় সাময়িকভাবে তাদের অশান্তি মিটে যায়। কিন্তু রাতে ফের নতুন করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে লকাই-কৃষ্ণ ও তাদের দলবল। সেই সময় এলাকায় ব্যাপক বোমাবাজি করে দু’পক্ষ। সেই সময়ই ঘটনাস্থল দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন পাশের গ্রামের বাসিন্দা বছর ৩৬-এর তপন দাস। দুই দলের সংঘর্ষে মাঝে পড়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর।

[আরও পড়ুন: পরীক্ষা করানোর নামে টাকা হাতানোর অভিযোগ, কাঠগড়ায় সরকারি হাসপাতালের আয়া]

এরপরই অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে ক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয়রা। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশ বাহিনী। দেহ তুলতে গেলেই পুলিশকে বাধা দেয় স্থানীয়রা। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তাঁরা। দীর্ঘক্ষণ পর পুলিশের আশ্বাস পেতেই অবরোধ তুলে নেন স্থানীয়রা। সূত্রের খবর, রাতেই খয়রাশোল থানার নিয়ে যাওয়া হয় তপন দাসের দেহ। ইতিমধ্যেই দেহটি ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আটক করা হয়েছে ৮ জনকে। ঘটনার পর বেশ কিছুক্ষণ পেরিয়ে গেলেও বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই থমথমে এলাকা। এলাকায় বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট।

[আরও পড়ুন: প্রেমিকার উপহারের টাকা জোগাড় করতে গাঁজা পাচার, শ্রীঘরে ঠাঁই ধৃত যুবকের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে