BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ২৫ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘হাথরাসের ধর্ষিতার পরিবার শাস্তি পাবে’, বেফাঁস মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন লকেট

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 5, 2020 1:53 pm|    Updated: October 5, 2020 8:37 pm

Hathras News in Bengali: Controversy started over MP Locket Chatterjee' comment over hathras | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাথরাস কাণ্ডের (Hathras Case) দোষীদের প্রকাশ্য রাস্তায় এনকাউন্টার করে শাস্তির নিদান দিয়েছিলেন হুগলির বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্য়ায়। তবে এবার ঘটনার প্রতিবাদ করতে গিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় (Locket Chatterjee)। বলে ফেললেন,উত্তরপ্রদেশের ধর্ষিতার পরিবার শাস্তি পাবে, যোগীজির উপর ভরসা আছে।” ভুলবশত এহেন মন্তব্য করে তীব্র কটাক্ষের শিকার হতে হয় সাংসদকে। নেটিজেনরা সরাসরি আক্রমণ করছিলেন তাঁকে। অনিচ্ছাকৃত ওই ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়ে নিলেন তিনি। আশ্বাস দিলেন, ধর্ষিতার পরিবার সুবিচার পাবেই।  

শনিবার দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে কাটোয়া থানার দাঁইহাটের মাকালতোড়ে গিয়েছিলেন সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। কর্মসূচি শেষে সেখানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। রাজ্য-রাজনীতি থেকে হাথরাস, বিভিন্ন ইস্যুতে প্রশ্ন করা হয় তাঁকে। সেইসময় উত্তরপ্রদেশে নারকীয় ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মুখ্যমন্ত্রীর পদযাত্রাকে তীব্র কটাক্ষ করেন লকেট। বলেন, “উত্তরপ্রদেশের ঘটনা নিয়ে তৃণমূল পথনাটিকা করছে। আর লকডাউনে পশ্চিমবঙ্গে একই ঘটনা ঘটেছে। ধর্ষণের পর খুন করে জ্যান্ত জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে। একজন অভিযুক্তও শাস্তি পায়নি। উত্তরপ্রদেশে ধর্ষিতা হলে দোষীদের শাস্তির দাবিতে রাজ্যে মিছিল করছেন। অথচ নিজের রাজ্যে কেউ ধর্ষিতা হলে নির্যাতিতার দোষ খুঁজে বের করা হয়।”

[আরও পড়ুন:  রাজ্যের ‘ওবিসি’ তালিকায় নাম থাকলেই কেন্দ্রের চাকরিতে সংরক্ষণ নয়, জানাল কলকাতা হাই কোর্ট]

এরপরই লকেট চট্টোপাধ্যায় জানান, তাঁর সম্পূর্ণ আস্থা রয়েছে যোগী সরকারের উপর। সেই সময়ই আচমকা সাংসদ বলে বসেন, “যোগীজির উপর ভরসা আছে উনি নিশ্চয়ই ধর্ষিতা, যে নির্যাতিতা তাঁর পরিবারের সদস্যদের শাস্তি দেবেন।” মুহূর্তে ভুল সংশোধন করে লকেট বলেন, “দোষীদের শাস্তি দেবেন।” কিছুক্ষণের মধ্যেই সাংসদের ওই মন্তব্যের ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। যার জেরে নেটিজেনদের তীব্র কটাক্ষের শিকার হতে হয় তাঁকে। তবে গোটা বিষয়ের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন সাংসদ। উল্লেখ্য, হাথরাস হত্যাকাণ্ড নিয়ে উত্তাল গোটা দেশ। ক্ষোভে ফুঁসছে প্রত্যেকে। যোগী সরকারের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে পথে নেমেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। এই পরিস্থিতিতে বিজেপি সাংসদের এই অনিচ্ছাকৃত ভুল যে নেটিজেনদের ক্ষোভের আগুনে ঘি ঢেলেছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। 

[আরও পড়ুন:  কোভিডে মৃত্যু নয় তো? আতঙ্কে কর্নিয়া নিচ্ছে না আই ব্যাংক, অন্ধকারেই দৃষ্টিহীনরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে